loading...

পুত্রবধূকে ধর্ষণের পর বালিশ চাপায় হত্যা

0

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গোবিন্দগঞ্জের মেয়ে ঘোড়াঘাটে শ্বশুর কর্তৃক পুত্র বধুকে ধর্ষণের পর বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

পারিবারিক ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলার মাজারপাড়ার হবিবরের পুত্র রুবেল এর সাথে ২ বছর আগে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার হামিদপুর (জাবেদ পাড়ার) রফিকুল ইসলামের কন্যা রফিকা বেগমের বিয়ে হয়।বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী রুবেল ঢাকায় পোশাক কারখায় চাকরি করেন। এ দিকে রফিকা বেগম একটি সন্তান নিয়ে মাজার পাড়ায় শ^শুর হবির বাড়িতে থাকেন।

গত ১২ জুলাই দিবাগত রাতে শাশুড়ি অসুস্থ্য হওয়ায় শাশুড়ির সাথে একই ঘরে থাকেন। এক পর্যায়ে গভীর রাতে লম্পট শ্বশুর হবিবরের পুত্রবধূর যৌন লিপ্সায় আসক্ত হয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এবং ধর্ষণের ঘটনা যাহাতে কেহ না জানে সে জন্য ধর্ষিতা পুত্রবধূকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে কৌশলে রফিকার গলায় রশি বেঁধে ঝুলিয়ে রাখেন। এবং ভোরে টের পেয়ে প্রতিবেশীদের ডাক-চিৎকার করে বলে রফিকা আত্মহত্যা করেছে। এবং ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে প্রেরণ করেছে।

এ ব্যাপারে ঘোড়াঘাট থানার ওসি জানান লাশের সুরুতহাল রিপোর্ট করেছি এবং একটি ইউডি মামলা হয়েছে ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে ।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত লম্পট শ্বশুর পলাতক রয়েছে।

loading...
%d bloggers like this: