loading...

গৌরীপুরে দুই গ্রামের সহযোগিতায় সেচ্ছাশ্রমে  বাঁশের সাকো নির্মান

0

শাহজাহান কবির:

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার মাওহা ইউনিয়নের বাউশালী পাড়া হইতে মাওহা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রাস্তা ‘নিজ মাওহা’ গ্রামের এন্টেশ মিয়ার বাড়ীর পিছনে জিটাই নদী সংলগ্ন খালের উপর  দইশত ফুঠ লম্বা সাকোটি নির্মান করেছে  এলাকাবাসী। গত ১০জুন  সোমবার থেকে শুরু করে দুই গ্রামের লোকজন প্রত্যেক বাড়ি বাড়ি গিয়ে বাঁশ কালেশন করে তিন দিন যাবৎ সেচ্ছা শ্রমে  কাজ করে ১৩ই জুন বৃহঃপতিবারে তা সম্পন্ন করেন। স্হানীয়রা জানান এখানে একটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে প্রতিনিয়ত  সেখানে শত শত শিক্ষার্থীদের  স্কুলে আসতে হয়। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বড় বড় দুর্ঘনার শিকার হতে হয় আমরা যারা  অবিভাবক আছি আমাদের সন্তানেরা যখন স্কুলে যায় আমরা টেনশনে থাকি এই সাকোটি নিয়ে একাধিকবার বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় লেখালেখি হয়েছে এমনকি পি আইও অফিসের লোকজন একাধিকরার মেপে নিয়েছে কিন্তুু কোন কাজে আসেনি, কোথায় গেলে পাকা সেতু পাব জানা নেই আমাদের।   নিজ মাওহা  সাকো নির্মানে অংশ নেয়  নিজ মাওহা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য উছমান গনি মন্ডল, মস্তুুফা ফকির নিজ মাওহা সরঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মানিক মিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদস্য মাহাবুব আলম মন্ডল,শান্তুু মিয়া হুমায়ুন কবির, ছাদেক আলতু মিয়া, শাজারুল, হাতিকুল,সোহাগ,শফিকুল,আশিক, তুহিন,বাওশালীপাড়া গ্রামের আঃ খালেক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মন্জুরুল হক, বন্ধুর বাধন একতা সংঘের সভাপতি আজহারুল ইসলাম, রতন মিয়া,সুহেল মিয়া, খুরশেদ মিয়া, রবিন,রানা,মুজিবুর রহমান, হিমেল, ইকবাল,জসিম,সারোয়ার, শাকিল, সাকিব, বোরহান,সুহেল,ইমরান প্রমূখ। এবিষয়ে স্হানীয় ইউপি সদস্য কামরুজ্জামানের মোবাইল ফোনে বাশের সাকো,র বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান আমি একজন ইউপি সদস্য হিসেবে চেয়ারম্যান সাহেবকে গত বছর অবহিত করেছিলাম কিন্তুু তিনি কোন ব্যবস্হাই করেনি।গত বছর আমার হাতের টাকা দিয়ে সাকোটি নির্মান করেছি। আমি সাকোর বিষয়ে আজকেই শুনেছি না হয় আমি ও সহযোগিতা করতাম।

loading...
%d bloggers like this: