৩০ হাজার মাস্ক বিতরণ করবে ত্রিশাল উপজেলা প্রশাসন

0

এইচ. এম জোবায়ের হোসাইন, ত্রিশাল:

‘সবাই মিলে সবার জন্য’ ও ‘মাস্ক পড়–ন, সুরক্ষিত থাকুন’ কর্মসূচির আওতায় ময়মনসিংহের ত্রিশালে উপজেলা প্রশাসেনর আয়োজনে উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় ৬শতাধিক সেচ্ছাসেবকদের সমন্বয়ে অসহায় ও নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে প্রাথমিক পর্যায়ে ৩০ হাজার মাস্ক বিতরণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এ কর্মসূচী বাস্তবায়নে সমাজের হৃদয়বান ব্যক্তিদের অংশ গ্রহণ করার আহবান জানিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বরাবরই করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে মাস্ক পরিধানের উপর জোর দিয়ে যাচ্ছে। দুজন লোক কথা বলার সময় যদি উভয়ই মাস্ক পরিধান করে তবে তাদের আক্রান্ত হবার ঝুঁকি অনেক কমে যায়। তাই মানুষকে মাস্ক পরিধানে উদ্বুদ্ধ করতে ত্রিশালের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান ও সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) মোঃ তরিকুল ইসলামের যৌথ উদ্যোগে গ্রহণ করা হয়েছে ‘মাস্ক পড়–ন, সুরক্ষিত থাকুন’ কর্মসূচি।

এ কর্মসূচির আওতায় ত্রিশাল উপজেলায় অসহায় ও নিম্ম আয়ের মানুষের মাঝে প্রাথমিক পর্যায়ে বিনামূল্যে ৩০ হাজার মাস্ক বিতরণ করা হবে। এ বিতরণ কাজে সহায়তা করবে ত্রিশালের করোনা প্রতিরোধে গঠিত ৬শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক। ইতোমধ্যেই এ কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করে ১০হাজার মাস্ক দিয়েছেন ত্রিশালের বিশিষ্ট সমাজসেবক আ’লীগনেতা ইকবাল হোসেন। তিনি গত শনিবার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ তরিকুল ইসলাম তুষারের নিকট ১০হাজার মাস্ক হস্তান্তর করেন। উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জুয়েল সরকারের পক্ষ থেকেও দেওয়া হয়েছে ৫হাজার মাস্ক।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ তরিকুল ইসলাম তুষার জানান, করোনা ভাইরাস সংক্রমন থেকে রক্ষা পেতে আমরা সবাই মিলে অসহায় ও নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণের কর্মসূচী হাতে নিয়েছি। এ সংক্রমন থেকে বাঁচতে আগে নিজে সচেতন হতে হবে, অপরকেও সচেতন করতে হবে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে আমরা অবশ্যই এই দুর্যোগ কাটিয়ে উঠবো। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোস্তাফিজুর রহান জানান, মাস্ক সংগ্রহে অনেক সামাজিক ব্যক্তিবর্গ এগিয়ে এসেছেন। ইতোমধ্যে ১৫ হাজারের অধিক আমাদের কাছে জমা হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যেই এ কার্যক্রম শুরু করা হবে।

%d bloggers like this: