হালুয়াঘাট সরকারি খাল দখল করে প্রভাবশালীদের মাছ চাষের অবৈধ বাদ অপসারণ।

0

মোঃরফিকুল্লাহ চৌধুরী মানিক হালুয়াঘাট প্রতিনিধি :

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২০ ইং বেলা বার টায ধুরাইল ও কৈচাপুর ইউনিয়নের চন্দ্রাবতী সরকারী খাল দখল করে অবৈধভাবে মাছ চাষের অভিযোগ উঠেছে প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। এতে বর্ষা মৌসুমে চাষাবাদের জমিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় বিঘ্ন ঘটছে চাষাবাদে। খাল আটকে মাছ চাষের দরুন পানি নামতে না পেরে পুরো বিল ডুবে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে।

জানা যায়, অবৈধভাবে খাল দখল করে মাছ চাষ করে আসছে এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি। বর্ষা মৌসুমে খালে বাঁধ নির্মাণ করে খাল আবদ্ধ করে রাখার ফলে অল্প বৃষ্টিতে নিচু এলাকায় স্থায়ী জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। এতে ধান চাষের জমি হাঁটু পানিতে ডুবে থাকছে। বসবাসের ভিটা বাড়ীতে পানি জমে থেকে জলাবদ্ধতা ও কাঁদার সৃষ্টি হয়ে মানুষের চলাচলে দূর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে। এভাবে খালের পানি চলাচলে বাঁধা সৃষ্টি করে উপজেলার ধুরাইল ও কইচাপুর ইউনিয়নের মৌজার চন্দ্রাবতী । সরকারি খাল দখল করে প্রভাবশালীদের মাছ ধরার উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে আটকানো হয় পানিপ্রবাহ। পানির স্বাভাবিক প্রবাহ আটকে যাওয়ায় টানা বৃষ্টিতে পানি বেড়ে কৃষকের রোপা আমন ধানের জমি তলিয়ে যেতে শুরু করে। নিরুপায় হয়ে কৃষকরা দ্বারস্থ হয় প্রশাসনের। পরে অভিযান চালিয়ে ৭ টি বাঁধ অপসারণ করে রক্ষা করা হয় প্রায় ৪০০ একর জমির ধান। সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানভীর আহমেদ এর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা। সার্বিক সহায়তা করেন ধুরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসী এবং হালুয়াঘাট থানা পুলিশ।

সহকারী কমিশনার ভূমি তানভীর আহমেদ আরো বলেন, কোন অসাধু লোক অবৈধভাবে খাল দখল করে মাছের চাষ করে জলবদ্ধতার সৃষ্টি করলে কিংবা পানি চলাচলের বাঁধা সৃষ্টি করলে অবৈধ দখলদারির বিরুদ্ধে ভূমি সংক্রান্ত আইনে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে

%d bloggers like this: