হালুয়াঘাটে বহুল প্রতীক্ষিত ভারতীয় কয়লা আমদানি ৩ টি এলসির মধ্যে দিয়ে শুরু

0

মোঃরফিকুল্লাহ চৌধুরী মানিক, হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে গোবরাকুড়া ও কড়াইতলী স্থল বন্দরের মাধ্যমে বহুল প্রতীক্ষিত ভারতীয় পাথর কয়লা আমদানি তিনটি এলসির মাধ্যমে শুরু হয়েছে।

১২ই নভেম্বর বৃহস্পতিবার বেলা তিনটায় গোবরাকুড়া ও সারে তিনটা নাগাদ কড়াইতলী স্থলবন্দর দিয়ে পাথর কয়লা বোঝাই ভারতীয় ট্রাক সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে কয়লা আমদানি শুরু হলো। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর আজ কয়লা আমদানি শুরু হওয়ায় দুটি স্থলবন্দরে ব্যবসায়ী ও শ্রমিকরা আনন্দিত ।

এ পর্যন্ত আমদানিকারকদের এলসি বাবদ প্রায় ২০০ থেকে ২৫০ কোটি টাকা নানান জটিলতায় কয়লা আমদানি বন্ধ থাকায় হালুয়াঘাটের কয়লা ব্যবসায়ীদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। কেউ কেউ ব্যাংক ঋণের চাপে সীমাহীন দুর্ভোগে দিশেহারা । তাই বহুল প্রতীক্ষিত এ কয়লা আমদানি আবারও শুরু হওয়ায় উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন অনেক ব্যবসায়ী।

স্থলবন্দরের কয়লা শ্রমিকরা জানান, দীর্ঘদিন বন্দর বন্ধ থাকায় খুব কষ্টে ছিলাম। আজ কয়লা আমদানি এবং পোর্ট খুলে দেওয়ায় আমরা খুশি।

জানা যায়, বিগত ২০১৪ সালের পর থেকেই কয়লা আমদানির নিয়ে টানাপোড়ান চলছিলো। ভারতীয় মামলা জটিলতা কাটিয়ে এবার মোটামুটি বানিজ্যিক সুযোগ সুবিধা পাবেন হালুয়াঘাটের গোবরাকুড়ার ব্যাবসায়ীরা, সেই সাথে বাড়বে শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ আর সরকার পাবে বাড়তি রাজস্ব এমনটায় আশা করেন হালুয়াঘাট স্থল বন্দর সি এন্ড এফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের কাস্টমস ও বন্দর বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ করিম শান্ত।

এ সময় ভারতীয় রপ্তানিকারকদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন জর্জ মারাক, বরুণ মারাক ও কার্তুষ মারাক, ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) এবং ভারতীয় কাস্টমসের প্রতিনিধিরা। বাংলাদেশের আমদানিকারকদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক অশোক কুমার অপু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সালেহ আহমেদ, হালুয়াঘাট ধান ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিঃ এর সভাপতি হুমায়ুন কবির মানিক, হালুয়াঘাট-আমদানি রপ্তানি কারক গ্রুপের সহসভাপতি স্টিফেন স্টেনসন রংদী, গোবরাকুড়া কয়লা আমদানিকারক সমিতির সভাপতি নুর মোহাম্মদ ও সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী, হালুয়াঘাট স্থল বন্দর সি এন্ড এফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আক্তার হোসেন প্রমুখ।

%d bloggers like this: