স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সৈয়দ রফিকুল ইসলাম’র সাংবাদিকদের সাথে মত-বিনিময়

0

স্টাফ রিপোর্টারঃ
ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌরসভার (৩০ জানুয়ারী/২১) শনিবার অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র পদে নারিকেল গাছ প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম শুক্রবার (২২ জানুয়ারী/২১) সন্ধ্যায় নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে এক মত-বিনিময় সভায় মিলিত হোন।

মত-বিনিময় সভায় গৌরীপুর প্রেসক্লাবের আহবায়ক এইচএম খায়রুল বাসার’র সভাপতিত্বে বর্তমান মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি বিগত দুই মেয়াদে ১০ বছর এ পৌরসভার মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছি । এর আগে আমি একবার কাউন্সিলর ছিলাম, পরে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হই।
গত পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী হয়ে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে জয় লাভ করি।

এবার মনোনয়নের সময় মামলায় আমি জেল হাজতে থাকায় দলীয় মনোনয়ন নৌকা পাইনি। আমাকে উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যা মামলায় মিথ্যা আসামী করা হয়েছে, যার জন্য আমি খুবই বিব্রতকর অবস্থায় রয়েছি। আমি এই হত্যার সাথে কোনভাবেই জড়িত নই, ময়মনসিংহ বিভাগীয় পুলিশ তদন্তে সতত্যা না পাওয়ায় বিধি মোতাবেক উচ্চ আদালত আমাকে জামিন দিয়েছে।

এসময় তিনি অভিযোগ করে বলেন আমার নির্বাচনী প্রচারণায় একটি স্বার্থন্বেষী মহলের প্ররোচনায় বহিরাগত কিছু লোকজন আমার প্যানা, পোস্টার ছিঁড়ে ফেলে দিচ্ছে, প্রচারণার মাইক ভাংচুর করা হচ্ছে প্রতিনিয়ত। ভোটারদের কাছে ভোট চাইতে গেলে আমার সমর্থকদের বিভিন্ন ধরণের হুমকি প্রদর্শন করা হচ্ছে। আমি বর্তমানে আমার জীবন ও পরিবার নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।
এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার এর কাছে লিখিত অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পায়নি। তাই সাংবাদিকদের জাতির বিবেক মনে করে, আপনারাই আমার শেষ আশ্রয়স্থল বলে উল্লেখ করেন তিনি।
আমি যাতে সঠিকভাবে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা চালাতে পারি,সেদিকে আপনারা লক্ষ্য রাখবেন। তিনি আরো বলেন আমি বিশ্বাস করি আপনারা সঠিক দায়িত্ব পালন করলে একটি সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এবং পৌরবাসী আমাকে নারিকেল গাছ প্রতীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে তাদের রায় উপহার দিবেন।

এ সময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে বলেন, আমি চেষ্টা করেছি পৌরসভায় শতভাগ কাজ করার। গত এক বছর যাবৎ বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে কাজগুলো দৃশ্যমান করতে পারিনি। আমি পুণরায় নির্বাচিত হলে অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করার পাশাপাশি নাগরিক সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধিসহ আধুনিক পৌরসভা গড়ে তুলবো।

মতবিনিময় সভায় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধি, আঞ্চলিক প্রতিনিধি ও গৌরীপুর উপজেলায় কর্মরত সকল প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

%d bloggers like this: