ঢাকা ২৯°সে ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম :
ফুলপুরে খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় ছাত্রদলের দোয়া ও ইফতার মাহফিল সিলেট নগরীর আখালিয়া থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার হেলডস্ ওপেন স্কাউট গ্রুপ ও কৃষি ব্যাংকের যৌথ উদ্যোগ এতিমদের মাঝে ঈদের পোশাক বিতরণ ফুলপুরে মানবাধিকার কমিশনের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত  ত্রিশালে সাংবাদিক এনামুল ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল নিজ উদ্যোগে কর্মহীনদের খাদ্য সহায়তার হাত বাড়ালেন ডাঃ প্রিন্স সেন রাশিয়া থেকে আসবে এক কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দ্বিতীয় ধাপে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ ময়মনসিংহে র‌্যাবের অভিযানে নকল স্বর্ণের বারসহ আটক-১ ঈশ্বরগঞ্জে ২৪ কেজি গাঁজাসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪

বৃষ্টি হলেই মোকামিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে হাঁটু পানি!

ইয়াকুব আলী,ফুলপুর:
ময়মনসিংহ জেলাধীন ফুলপুর উপজেলার ৪নং সিংহেশ্বর ইউনিয়নের মোকামিয়া ২৪ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে বৃষ্টি হতে না হতেই জমে থাকে বৃষ্টির পানি। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে বৃষ্টির পানি জমে থাকার কারণে শিক্ষাকার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।
বৃষ্টি হলেই স্কুলের মাঠে হাঁটু পানি। সরেজমিনে দেখা যায়, সামান্য বৃষ্টিতেই মাঠে হাঁটু পানি জমে
আছে। দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতার কারণে স্কুলে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের যাতায়াতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। স্কুলের দক্ষিনে সরকারি রাস্তা, পশ্চিম পাশে ফিছারি,  উত্তর পাশে সরকারি স্কুল ও পূর্ব পাশ বসত বাড়ী থাকার কারণে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি।
জলাবদ্ধতার কারণে স্কুল মাঠে শিক্ষার্থীরা শরীরচর্চা ও জাতীয় সংগীত গাইতে সমবেত হতে পারছে না। বন্ধ হয়ে আছে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা। এ নিয়ে বিদ্যালয়ের টয়লেট ব্যবহার করতে পারছে না শিক্ষক-শিক্ষিকারা।
শিক্ষার্থীদের অভিবাবকদের মধ্যেও এ নিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা। বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী আফসানা খানম, ৩য় শ্রেণির সূচনা আক্তার২য় শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থী তাহসিন আহমেদ ওয়াফিক ও অনিকা বলেন, দুই দিন ধরে তারা বিদ্যালয়ে ক্লাস করতে যেতে পারছে না। এ বিষয়টি দ্রুত সমাধানের দাবি জানিয়েছেন এ শিক্ষার্থীরা। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলেমা খাতুন জানান, মাঠের পানি নিষ্কাষণের জন্য উপজেলা নির্বাহি অফিসার কে একাধিক বার চাঠি দিয়েছেন।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নিজে এসে দেখে গিয়েছেন।তাতেও কোন ব্যবস্থা হচ্ছে না। তিনি আরো বলেন, সমস্যার কথা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবগত করার পরও বরাদ্ধের অভাবে পানি
নিষ্কাশনের কোনো প্রদক্ষেপ নিচ্ছে না শিক্ষা বিভাগ।উল্লেখ্য প্রধান শিক্ষক নিজের টাকা ব্যয় কনে ফাইপ কিনেছেন,কিন্তু নিষ্কাষণের কোথাও স্থান পাচ্ছেন না।




আপনার মতামত লিখুন :



বৃহত্তর ময়মনসিংহ এর সর্বশেষ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর