ঢাকা ২৯°সে ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম :
ফুলপুরে খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় ছাত্রদলের দোয়া ও ইফতার মাহফিল সিলেট নগরীর আখালিয়া থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার হেলডস্ ওপেন স্কাউট গ্রুপ ও কৃষি ব্যাংকের যৌথ উদ্যোগ এতিমদের মাঝে ঈদের পোশাক বিতরণ ফুলপুরে মানবাধিকার কমিশনের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত  ত্রিশালে সাংবাদিক এনামুল ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল নিজ উদ্যোগে কর্মহীনদের খাদ্য সহায়তার হাত বাড়ালেন ডাঃ প্রিন্স সেন রাশিয়া থেকে আসবে এক কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দ্বিতীয় ধাপে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ ময়মনসিংহে র‌্যাবের অভিযানে নকল স্বর্ণের বারসহ আটক-১ ঈশ্বরগঞ্জে ২৪ কেজি গাঁজাসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪

পত্নীতলায় বন্যায় গবাদিপশুর খাদ্য সংকেট, পুকুরের সোয়া তিন কেটি টাকা মাছ ভেসে গেছে

সানজাদ রয়েল সাগর বদলগাছী (নওগাঁ) ঃ
উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানিতে পত্নীতলায় আত্রাই নদীর বাঁধ ভেঙ্গে উপজেলার ঘোঘনগর, আমাইড়, কৃষ্ণপুর, পাটিচরা, নজিপুর, পত্নীতলায় ইউপি , নজিপুর পৌরসভা ও নদী তীরবর্তী এলাকার কয়েক হাজার পরিবার মধ্যে প্রায় ৩ শতাধিক কাঁচা ঘর-বাড়ি বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় গৃহপালিত পশু পাখি নিয়ে মানু্ষেরা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বাঁধ এবং উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। প্রশাসন সহ বিভিন্ন সংগঠন থেকে এখন পর্যন্ত যে ত্রান দেয়া হয়েছে, তা অত্যন্ত অপ্রতুল। বাঁধ ভেঙ্গে বন্যার পানির কারনে উপজেলার প্রায় ২ কি.মি পাকা রাস্তা ও গ্রামীন কয়েক কি.মি কাঁচা রাস্তার ক্ষতি হয়েছে। এই বন্যার কারনে উপজেলার প্রায় ৮ হাজার হেক্টর কৃষি জমির ফসল পানির নিচে তলিয়ে গেছে পাশাপাশি উপজেলার ৫ শতাধিক পুকুর ডুবে প্রায় ৩ কোটি টাকা মূল্যের মাছ ভেসে গেছে।
এলাকাবাসীর অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরদারি না থাকায় অপরিকল্পিত ভাবে নদীর বিভিন্ন অংশ থেকে ট্রাক্টর দিয়ে অবাধে বালু উত্তোলনের ফলে বাঁধের ধার গুলি ভেঙ্গে যাওয়ায় আত্রাই নদীর বেশ কিছু যায়গার বাঁধ ভাঙ্গনের কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে।
প্রায় ২০ বছর পর এই বন্যার পানিতে এলাকার মানুষ ব্যাপক ভাবে ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে। ব্যাপক বন্যায় উপজেলার প্রায় ৩শটি কাঁচা ঘর-বাড়ি ভেঙ্গে গেছে। উল্লেখ্য আত্রাই নদীর পানি বাড়াতে নদীর চড়ে অপরিকল্পিত ভাবে গড়ে তোলা নজিপুর পৌর সভার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত একমাত্র পৌর পার্কটি এখন পানিতে নিম্মজিত।
বন্যায় উপজেলার ৫২৯টি পুকুরের প্রায় সব মাছ ভেসে গেছে। এসব পুকুরে নেট দিয়ে প্রতিবন্ধকতার চেষ্টা করা হলেও পুকুর গুলোর প্রায় সব মাছই ভেসে যায়। এব্যাপারে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ইমরুল কায়েশ জানান, আকস্মিক ভাবে বন্যা হওয়ায় পুকুর মালিকরা সতর্কতা অবলম্বন করতে পারেননি। বন্যায় উপজেলার ১১১.২৯ হেক্টর জলার ৫২৯টি পুকুরের মাছ ভেসে যাওয়ায় প্রায় ৩ কোটি ১২ লক্ষ ২৩ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমরা ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা প্রস্তুত করছি।
বন্যার পানিতে পানির নিচে তলিয়ে গেছে কৃষকদের কাংক্ষিত রোপা আমন ধান সহ বিভিন্ন ধরনের রবি শস্য ফসল। উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানাগেছে, এবারে উপজেলায় প্রায় ২৪ হাজার ৫শ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধান, ৬হাজার ৭৭০ হেক্টর জমিতে আউশ ধন সহ ৩৫০ হেক্টর জমিতে শাক-সব্জি চাষাবাদ করেছিল এলাকার কৃষকরা। এর মধ্যে আমনের ধান বন্যার পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে ৬ হাজার ৪৩০ হেক্টর, আউশ পাকা ধান প্রায় ৫ হাজার হেক্টর জমির ধান কাটা হলেও বাকি ১৭৭০হেক্টর জমি সহ প্রায় সব শাক-সব্জির ক্ষেত পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে আগামী আমন ফসল নিয়ে সংকিত হয়ে পড়েছে এলাকার কৃষকরা ।
উপজেলায় বন্যায় এবারে মানুষ সহ গবাদি পশুর কোন প্রাণহানির ঘটনা না ঘটলেও ঘর-বাড়ি, মাছ সহ ফসলে ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। সেই সাথে গবাদি পশুর খাদ্য সংকটেরও সৃষ্টি হয়েছে। বাঁধে আশ্রয় নেয়া কয়েকজন ব্যক্তি বলেন, ‘মানুষের খাবার জুটলেও গরু-ছাগল নিয়ে মহা-যন্ত্রনায় পড়ে গেছি। গরু-ছাগলের কষ্টের কোন শেষ নেই। এদেও খাবারের জন্য নেই ঘাস, নেই খ্যাড়/ (খড়) বন্যায় ডুবে গেছে সব । বেশি দাম দিয়েও কনোখানে খ্যাড় বা ঘাস পাওয়া যাচ্ছে না। খাবার না পেয়ে গরু-ছাগলগুলো দুর্বল হয়ে য্যাচ্ছে। উপজেলা প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরও খাদ্য সংকটের কথা নিশ্চিত করেছে।
সরকারী তথ্য অনুযায়ী এ উপজেলায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে একটি পৌরসভা সহ ৬টি ইউনিয়নের ১০৪টি গ্রামের ৬হাজার ৫শ পরিবারের। এতে ২৮০টি মাটির ঘর-বাড়ি সম্পূর্ন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩হাজার ১শটি বাড়ি-ঘর।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান, উপজেলার বন্যা দূর্গত এলাকায় বে-সরকারী বিভিন্ন সংস্থা বাদেও সরকারী ভাবে ত্রান সামগ্রী হিসাবে নগদ ২লক্ষ টাকা, ৬৫ টন চাল ও ৮হাজার ২শত ৩০ প্যাকেট শুকনা খাবার বিতরন করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন বন্যা দূর্গত এলাকায় আরো ত্রান সামগ্রী দেয়ার প্রস্তুতি চলছে।




আপনার মতামত লিখুন :



রাজশাহী বিভাগ এর সর্বশেষ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর