সাংবাদিকদের ওপর হামলায় জড়িতদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে গৌরীপুর মানববন্ধন

0

স্টাফ রিপোর্টার :
ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌরসভা নির্বাচনে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে এনটিভি’র ক্যামেরাপার্সন সাংবাদিক মাসুদ রানা ও একাত্তর টিভি’র ক্যামেরাপার্সন নুরুজ্জামানের ওপর হামলার প্রতিবাদে সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি/২১) গৌরীপুরের কর্মরত সকল সাংবাদিকবৃন্দ পুরাতন সোনালী ব্যাংক চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করে। বক্তরা অবিলম্বে হামলাকারীদের সনাক্ত করে তাদেরকে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
এ মানববন্ধনত্তোর সমাবেশে গৌরীপুর প্রেসকাবের আহবায়ক এইচ.এম খায়রুল বাসার’র সভাপতিত্বে ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক রইছ উদ্দিন’র সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, গৌরীপুর প্রেসকাবের সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ম. নূরুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি শফিকুল ইসলাম মিন্টু, কমল সরকার, গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সদস্য-সচিব মশিউর রহমান কাউসার, সাংবাদিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি বেগ ফারুক আহাম্মেদ, গৌরীপুর রিপোর্টাস কাবের সভাপতি রায়হান উদ্দিন সরকার, প্রেসক্লাবের সদস্য কাজী আব্দুল্লাহ আল আমিন, সাংবাদিক শেখ মোঃ বিপ্লব প্রমুখ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন প্রথম আলোর ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধি কামরান পারভেজ ও গৌরীপুরে কর্তব্যরত সকল সংবাদকর্মীগণ।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকদের উপর হামলা খুবই ন্যাক্কারজনক ও দুঃখজনক ঘটনা। এই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এই হামলার সাথে যারা জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে এবং ৭২ ঘন্টার সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। তার ব্যর্থয় হলে আমরা আরো কঠোর আন্দোলনে যাবো।এ বিষয়ে ভুক্তভোগী এনটিভি’র ক্যামেরাপারসন বলেন মাসুদ রানা বলেন, দুপুরে কেন্দ্রের পাশে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার খবর পেয়ে সেখানে যাওয়া মাত্রই তাদেরকে দেখা মাত্রই দুর্বত্তরা ধর ধর বলে চিৎকার করে বাঁশ ও লাঠি দিয়ে এলোপাতারি মারতে থাকে। এসময় তার হাতে থাকা ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়ে ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় আমাকে ও নরুজ্জামানকে মাথায়, হাতে, পায়ে ও পিঠে গুরুতর আঘাত করে। পরে আমাকে উদ্ধার করে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত

ডাক্তার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে।’
উল্লেখ্য, গত ৩০ জানুয়ারী গৌরীপুর পৌরসভার নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শফিকুল ইসলামের ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ রফিকুল ইসলামের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার সময় এনটিভি ও একাত্তর টিভি’র ক্যামেরাপারসন মাসুদ রানা ও নুরুজ্জামান আহত হয়।

%d bloggers like this: