loading...

সম্মেলনে তৃণমূলকে ‘প্রাপ্য’ আতিথেয়তা দেবে আ. লীগ

0
নিজস্ব প্রতিবেদক:

ক্ষমতাসীন দলের জাতীয় সম্মেলনে ঢাকায় আসা তৃণমূণের নেতা-কর্মীদেরকে আপ্যায়নে সর্বোচ্চ চেষ্টা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব। কেন্দ্রীয় নেতারা বলছেন, ঢাকা থেকে স্থানীয় পর্যায়ে গেলে সেখানকার নেতারা যে আন্তরিকতা ও আপ্যায়ন করেন সেটা কেন্দ্র সব সময় করতে পারে না। তাই এবারের জাতীয় সম্মেলনে তৃণমূলকে তার প্রাপ্য আতিথেয়তা দিতে চান তারা।

মঙ্গলবার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দপ্তর উপ কমিটির রাজশাহী বিভাগের বৈঠকে এই সিদ্ধান্তের কথা জানান নেতারা।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন, দপ্তর উপ-কমিটির সদস্য আব্দুল মান্নান, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আফজাল হোসেন, খায়রুজ্জামান লিটন, আমিনুল ইসলাম আমিন, এসএম কামাল হোসেন প্রমুখ।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, ‘আমরা যখন দলের বিভিন্ন কর্মসূচিতে তৃণমূলে যাই তখন তাদের আমাদের অনেক সম্মান দেন তারা। কিন্তু তাঁরা যখন কেন্দ্রে আসেন, তখন সেভাবে আতিথেয়তা করতে পারি না। তাই এবার সম্মেলনে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের যথাযথভাবে সন্মান জানাবো।’

স্বপন বলেন, ‘কাউন্সিলর এবং ডেলিগেটরা ঢাকায় এসে যেন কোন রকমের সমস্যায় না পরে সেই ব্যবস্থা আমরা করবো। তাদের সেবা দেওয়ার জন্য আমাদের নির্দিষ্ট (বিভাগওয়ারী)বুথ থাকবে।

জাতীয় সম্মেলনে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলরের সংখ্যা ছয় হাজার ৫৭০ জন। আর ডেলিগেট হবে এর দ্বিগুণেরও বেশি। ছয় হাজার ৫৭০ জন কাউন্সিলের মধ্যে আওয়ামী লীগের জাতীয় ও কেন্দ্রীয় কমিটির ১৭৩ জন। ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগে দুই হাজার ৯৭ জন। চট্টগ্রাম বিভাগে এক হাজার ২৭৭ জন। রাজশাহী বিভাগে ৮১৫ জন, খুলনায় ৬৮৯ জন, বরিশালে ৩৬৫, সিলেটে ৪৫১ এবং রংপুর বিভাগের কাউন্সিলরের সংখ্যা ৭০৩ জন।

আগামী ২২ থেকে ২৩ অক্টোবর রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিত হবে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন। দলের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনে আনুষ্ঠানিকতা এখন শেষ পর্যায়ে।

loading...
%d bloggers like this: