শ্যামগঞ্জে ১৫০টি দরিদ্র পরিবারের মাঝে জরুরী ঔষধ বিতরণ করেন ডিসি মিজানুর রহমান

0

শাহজাহান কবির :
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার শ্যামগঞ্জ বাজারে চলমান জীবাণুনাশক ছিটানো ও পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের লাল বাহিনীর ভূমিকার প্রশংসা করেন ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান।

২১ মে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় শ্যামগঞ্জ ডাকবাংলো হল রুমে গ্রিন শ্যামগঞ্জ-এর উদ্যোগে এবং অপসোনিন ফার্মা-র সৌজন্যে ১৫০জন দরিদ্র পরিবারের মাঝে জরুরী ঔষধ বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে ঔষধ তুলে দেন জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী নির্বাহী অফিসার সেজুঁতি ধর।
অনুষ্ঠানে উপকারভুগী ও গ্রীন শ্যামগঞ্জের সকল সদস্যদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি করোনায় সংক্রমন রোধে সরকারের নির্দেশনা মেনে চলতে অনুরোধ করেন। শ্যামগঞ্জ বাজারে চলমান জীবাণুনাশক ছিটানো কার্যক্রম ও দরিদ্র পরিবারের মাঝে জরুরী ঔষধ বিতরণ কার্যক্রমের প্রশংসা করে সমাজহিতৈষী এমন কর্মকাণ্ডে সকল ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। এ ছাড়াও তিনি অপসোনিন ফার্মা-র জিএম জনাব আব্দুল মোমেন তালুকদারকে এবং গ্রিন শ্যামগঞ্জ – এর মূল উদ্যোক্তা গোবিন্দ বনিক সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।

দুর্যোগপূর্ণ পরিবেশ উপেক্ষা করে এবং শত ব্যস্ততার মাঝেও এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার জন্য মাননীয় জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয়দ্বয়কে শ্যামগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান গ্রিন শ্যামগঞ্জের উদ্যোক্তা গোবিন্দ বনিক।
অনুষ্ঠানে গ্রিন শ্যামগঞ্জের অন্যান্য উদ্যোক্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বেলায়েত হোসেন মনোজ, সাবেক ছাত্রনেতা মামুনর রশিদ, সাবেক ছাত্রনেতা ও ব্যবসায়ী মফিদুল ইসলাম অসীম, ইউপি সদস্য ফারুক মিয়া,ইউপি সদস্য আবদুল্লাহ আল নোমান, শিক্ষক বিপুল কুমার পন্ডিত,মিথুন আজমী প্রমুখ।

%d bloggers like this: