শিশুদের ছবি-ভিডিও সংগ্রহ করে পর্নোগ্রাফি, যুবক গ্রেপ্তার

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজধানীর মুগদা থানার অতীশ দীপঙ্কর সড়কের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে দেশি-বিদেশি শিশুদের অশ্লিল ছবি ও ভিডিও দিয়ে পর্নোগ্রাফির অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের (সিটিটিসি) সাইবার অপরাধ তদন্ত বিভাগ। গ্রেপ্তার যুবকের নাম কে এম মীরাজুল আজম।

রবিবার সন্ধ্যায় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে সংস্থাটি।

এতে জানানো হয়, গত ২৯ ডিসেম্বর রাতে মীরাজুল আজমকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় অভিযুক্তের মুঠোফোন, অন্যান্য ডিভাইস ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের আইডি জব্দ করা হয়।

সিটিটিসির সাইবার অপরাধ তদন্ত বিভাগের সিনিয়র সহকারী কমিশনার সাইদ নাসিরুল্লাহর নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সিটিটিসির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অভিযুক্ত আজম অনলাইনে উঠতি বয়সী শিশুদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পর্নো ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও সরবরাহ করতেন এবং তাদের নিজেদের পর্নো ছবি–ভিডিও দিতে ও করতে উৎসাহ দিতেন।

অভিযুক্ত আজম তার ব্যবহৃত হোয়াটসঅ্যাপ আইডিতে ভারতীয় অপ্রাপ্ত বয়স্ক এক ভুক্তভোগীর অশ্লীল ছবি এবং তার ব্যক্তিগত অশ্লীল ভিডিও সংগ্রহ করেন। পরে সেগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে আড়াই লাখ ভারতীয় রুপি দিতে চাপ প্রয়োজগ করেন। তিনি এভাবেই দেশি–বিদেশি শিশুদের কাছ থেকে পর্নো ছবি–ভিডিও সংগ্রহ করে তা বিভিন্ন পর্ন ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট খুলে আপলোড করতেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাইবার টেররিজম ইনভেস্টিগেশন টিমের সিটি-সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশনের বিশেষ টিমের সদস্যরা কম্পিউটার সিস্টেম ব্যবহার করে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া তথ্যের সাইবার পেট্রলিং করার সময় এই অভিযুক্তের সন্ধান পায়। পরে প্রযুক্তির সহায়তার মাধ্যমে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। রমনা মডেল থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনের মাধ্যমে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

%d bloggers like this: