শিগগিরই বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনে যাচ্ছে সরকার

0

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, শিগগিরই দেশে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ (Waste TO Energy-WTE) উৎপাদন করতে যাচ্ছে সরকার। বুধবার রাজধানীর উত্তরা কমিউনিটি সেন্টারে উত্তর সিটি কর্পোরেশনের অধীন কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করায় সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

ঢাকাসহ সব সিটি কর্পোরেশন এবং ছোটবড় শহরে এমনকি গ্রামগঞ্জ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার ওপর গুরুত্বারোপ করে মন্ত্রী বলেন, যেখানে-সেখানে ময়লা না ফেলে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় ময়লা-আবর্জনা ফেলার পর এসব ময়লা-আবর্জনা সংগ্রহ করে প্লান্টের মাধ্যমে বার্ন করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে বলে জানান তিনি। উন্নত বিশ্বে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে (Waste TO Energy-WTE) বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে উল্লেখ করে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী জানান, দেশেও সব ধরনের বর্জ্য বার্ন করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করার জন্য প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

শহর ও গ্রামাঞ্চলে পশু-পাখির মৃতদেহ ও ময়লা-আবর্জনা যত্রতত্র না ফেলার আহ্বান জানান এলজিআরডিমন্ত্রী। তিনি বলেন, মৃত পশু-পাখির দেহের অংশ ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকায় এগুলো পচে বিভিন্ন রোগজীবাণু সৃষ্টি হয়। এতে মাটি, পানি ও বায়ু দূষণসহ সার্বিকভাবে পরিবেশ দূষিত হয়, যা জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এজন্য সচেতন নাগরিক হয়ে যেখানে-সেখানে ময়লা না ফেলে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলে পরিচ্ছন্ন নগরী তথা দেশ গড়তে হবে।

তাজুল ইসলাম বলেন, পরিচ্ছন্নকর্মীদের প্রতি আমাদের আন্তরিকতা, সম্মান ও দায়িত্ব আছে। তাদেরও উন্নত জীবনযাপনের স্বপ্ন পূরণের অধিকার আছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তাদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির পাশাপাশি বহুতল ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। সবাই উন্নত জীবনযাপনের সুযোগ পাবে। সব পরিচ্ছন্নকর্মী থেকে শুরু করে সব খেটে খাওয়া মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে সরকার।

পবিত্র ঈদুল আজহায় কোরবানি পশুর বর্জ্য দ্রুত অপসারণ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করায় পরিচ্ছন্নকর্মীদের ধন্যবাদ জানান। মন্ত্রী বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মেয়রের এটি খুবই ভালো এবং প্রশংসনীয় উদ্যোগ। যারা শহর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে পরিবেশকে দূষণমুক্ত রাখে তাদের প্রতি সবার দায়িত্ব রয়েছে। পরে তাজুল ইসলাম পরিচ্ছন্ন কর্মীদের নিজে খাবার পরিবেশন করেন এবং তাদের সঙ্গে খাবার গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বিশেষ অতিথি ছিলেন।

%d bloggers like this: