শনিবার ক্লাস বন্ধ রেখে কুরআন খতম ও দোয়ার আহ্বান বেফাকের

0

বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আল্লামা আহমদ শফী রহ. এর ইন্তেকালে বোর্ডের অন্তর্ভূক্ত সব মাদরাসার ক্লাস বন্ধ রেখে কুরআন খতম ও দোয়ার আহ্বান করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের মহাপরিচালক অধ্যাপক মাওলানা যােবায়ের আহমদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এতদ্বারা বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ-এর অন্তর্ভূক্ত সকল মাদরাসা কর্তৃপক্ষের অবগতির জন্য জানানাে যাচ্ছে, বেফাকের চেয়ারম্যান শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.-এর ইন্তেকালে আগামীকাল রােজ শনিবার সকল মাদরাসার ক্লাস বন্ধ রেখে হযরতের জন্য খতমে কুরআন পড়ে দোয়ার ব্যবস্থা করার জন্য অনুরােধ করা গেল।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এর আমির, বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড (বেফাক) এর সভাপতি, চট্টগ্রাম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার মুহতামিম শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. আজ শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর আজগড় আলী হাসপাতালে সন্ধ্যা ৬:২০ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন।

তাঁর মৃত্যুতে শোক নেমে এসেছে এদেশের আলেমসমাজ, সাধারণ মানুষ ও দেশ বিদেশে থাকা তাঁর কোটি কোটি ভক্তবৃন্দের কাছে। সারাদেশের ছাত্র-শিক্ষক ও তালিবুল ইলমরা তাঁর জন্য কুরআন তেলাওয়াত, নামাজ, দোয়া ও মাগফেরাত কামনায় মুনাজাত করছেন। তাঁর মৃত্যুতে শোতবার্তা দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় হেফাজত ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর শারীরিক অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকায় আনা হয়েছিল। এরপরই তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের আইসিইউতে থাকা আল্লামা শফীকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে শুক্রবার সন্ধ্যার আগে ঢাকায় এনে আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

%d bloggers like this: