লাদাখ পরিদর্শনে মোদি, চীনকে কড়া বার্তা

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,

চীনের সঙ্গে সীমান্তে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে লাদাখ পরিদর্শন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এসময় চীনকে কড়া বার্তা দিয়ে সেনাদের উদ্দেশ্যে মোদি বলেন, ‘আগ্রাসনের দিন শেষ। এখন প্রগতির যুগ। এগিয়ে যাওয়ার সময়। ইতিহাস সাক্ষী আগ্রাসনকারীরা সবসময় ধ্বংস হয়েছে। যারা আগ্রাসনের নীতিতে চলছে, তারা শান্তির পক্ষে বিপদের কারণ’। যদিও বক্তৃতায় চীনের নাম উল্লেখ করেননি মোদি।

লাদাখ সীমান্তে চীনের সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়েছে। তাদের কথা স্মরণ করে মোদি বলেন, ‘আপনাদের সাহস এই পর্বতের থেকেও উঁচু। আপনাদের মনোবল এই কঠিন ভূমির থেকেও শক্ত। আপনাদের ইচ্ছাশক্তি পর্বতের থেকেও অটল। আপনারা যে বীরত্ব দেখিয়েছেন তাকে পুরো বিশ্ব সেলাম জানিয়েছে। আপনাদের পরাক্রমে দেশের লোকের অটুট বিশ্বাস রয়েছে যে, ভারত আপনাদের হাতে নিরাপদ। আপনারা অতীতে জিতেছেন, ভবিষ্যতেও জিতবেন। সেনার মনোবল বাড়ানোর পাশাপাশি চীনের প্রতি কড়া বার্তা এর মধ্যেও লুকিয়ে আছে।’ খবর ডয়চে ভেলের।

লাদাখের লেহ বিমানবন্দরে নেমে হেলিকপ্টারে করে মোদি যান ১১ হাজার ফুট উঁচু নিমুতে। সেখানেই সেনাকর্তাদের সঙ্গে পুরো পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন। তারপর ভাষণে মোদি বলেন, ‘শান্তির জন্য শক্তি জরুরি। যারা দুর্বল তারা শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে পারেন না। শান্তির পূর্বশর্ত হলো শক্তি’।

মহাভারতে শ্রীকৃষ্ণের উল্লেখ করে মোদি বলেন, ‘ভারত শান্তির লক্ষ্য নিয়ে চলছে। কিন্তু প্রয়োজনে দেশকে রক্ষা করতে পরাক্রম দেখাতেও সে পিছপা হবে না।’

সেনাদের উদ্বুদ্ধ করতে এবং মৃত সৈনিকদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে মোদি বলেছেন, ‘আমি দুই মা-কে সব চেয়ে বেশি সম্মান করি। এক, ভারতমাতা এবং দুই, বীরমাতা, যারা এই সাহসী, পরাক্রমী সেনাদের জন্ম দিয়েছেন।’

লাদাখ সফরের সময় মোদির সঙ্গী ছিলেন ভারতের চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত এবং সেনাপ্রধান এম এম নরবনে।

%d bloggers like this: