ময়মনসিংহে স্বামীর নির্যাতন স্ত্রী নিহত

0

মাসুদ রানা, ময়মনসিংহ:
ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ার পল­ীতে স্বামীর নির্যাতনে নিহত হয়েছেন লিপি আক্তার (২৮) নামে এক গৃহবধূ। রবিবার ( ৪ নভেম্বর ) সন্ধায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ( মমেক) হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। জরুরী বিভাগের চিকিৎসক অশিষ কুমার রায় মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন ।

খবর পেয়ে ফুলবাড়িয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছেছে। ফুলবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রিফাত খান রাজিব এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন । নিহতের বড় ভাই ফজলুল হক জানান, পাচ বছর আগে উপজেলার কালাদহ ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের ছালামের ছেলে আতিকের সাথে বিয়ে হয় লিপির। বরকনে একই গ্রামের বাসিন্দা। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য লিপিকে নির্যাতন কওে আসছে তার স্বামী আতিক। দুপুরে লিপিকে নির্যাতন করে বাড়ির আঙ্গিনায় ফেলে রাখে শশুরবাড়ির লোকজন।

রবিবার ( ৪ নভেম্বর ) খবর পেয়ে বড় ভাই ফজলুল হক স্বজনদের সহায়তায় সন্ধায় লিপিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে আনেন । জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক লিপিকে মৃত ঘোষনা করে মরদেহ হাসপাতাল মর্গে পাঠায় ।

নিহতের চার বছরের এক ছেলে সন্তান রয়েছে বলে জানান তিনি । ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে স্বামী আতিক। অন্যদিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ( মমেক) হাসপাতালের জরুরী বিভাগের সামনে পরে থাকা অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।