ময়মনসিংহে করোনা পরীক্ষা বন্ধ ঘোষণা

0

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি,

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের পিসিআর ল্যাবে ময়মনসিংহ বিভাগের সব জেলার করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। প্রতিদিন রাতে পরীক্ষাকৃত নমুনার ফলাফল ঘোষণা হতো। কিন্তু বৃহস্পতিবার থেকে পিসিআর ল্যাবে করোনা শনাক্তের পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত ময়মনসিংহে নমুনা সংগ্রহ বন্ধ থাকবে।

বৃহস্পতিবার সকালে ময়মনসিংহের সিভিল সার্জন এবিএম মশিউল আলম এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত ময়মনসিংহে নমুনা সংগ্রহ বন্ধ থাকবে। তিনি বলেন, নতুন টেস্ট কিট আসছে বিধায় এই সিদ্ধান্তে সাময়িক সমস্যা হলেও আমদের সবাইকে মেনে নিতে হবে।

এদিকে বুধবার কারিগরি ক্রটির কারণে এখানকার পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা সম্পন্ন হয়নি। তাই কোনো ফলাফলও ঘোষণা করা হয়নি। বুধবারের রিপোর্ট পরবর্তীতে দেয়া হবে বলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ থেকে জানানো হয়েছে।

এদিকে কারিগরি ক্রটির কারণে নমুনা পরীক্ষা না হওয়া এবং নমুনা সংগ্রহ বন্ধ হয়ে যাওয়ার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিএমএ ময়মনসিংহ শাখার সভাপতি ডা. মতিউর রহমান ভূঁইয়া। তিনি বলেন, গত ১৫ দিনে আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এমন পরিস্থিতিতে নমুনা সংগ্রহ বন্ধ থাকলে আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বাড়বে তেমনি চিকিৎসাসেবার উপরও প্রভাব পড়বে।

অন্যদিকে ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলায় হু হু করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। উদ্বেগজনক হারে আক্রান্ত হচ্ছেন র‌্যাব, পুলিশ, ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা।

এদিকে গত মঙ্গলবার ময়মনসিংহ বিভাগে একদিনে সর্বোচ্চ করোনা পজেটিভ আসে। এর মধ্যে ময়মনসিংহ জেলার ১৪৫ জন, নেত্রকোনা জেলার ১৯ জন, শেরপুর জেলার ১০ জন এবং জামালপুর জেলার ৩৯ জন।

এ নিয়ে ময়মনসিং বিভাগে আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল দুই হাজার ২২৪ জনে। এর মধ্যে ময়মনসিংহ জেলার এক হাজার ২০৪ জন, জামালপুর জেলার ৪৫৫ জন, নেত্রকোনা জেলার ৩৬৬ জন এবং শেরপুর জেলার ১৯৩ জন।

গত মঙ্গলবার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৬ জন। এ নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলায় ৮০০ জন সুস্থ হয়েছেন।

প্রাণসংহারি করোনা ভাইরাসে ময়মনসিংহ বিভাগে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২৩ জন।

%d bloggers like this: