মালিতে বিয়ের অনুষ্ঠানে ফ্রান্সের হামলায় নিহত ২০

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

মালিতে বিমান হামলায় বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসীকে হত্যার দাবি করেছে ফ্রান্স। তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ফ্রান্সের সেনাবাহিনী হেলিকপ্টার থেকে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে গুলি করে ২০জনকে হত্যা করেছে।

বুধবার বিবিসির খবরে বলা হয়, মালির মপতি অঞ্চলের বাউন্টি গ্রামে বিয়ের অনুষ্ঠানে ওই হামলা চালানো হামলায় হয়। নিহতদের মধ্যে শিশুও রয়েছে।

মালিতে সম্প্রতি হামলায় ফ্রান্সের পাঁচজন সেনা নিহত হয়। মঙ্গলবার ফ্রান্সের সেনাবাহিনী জানায়, অনেক তল্লাশির পরে মপতি অঞ্চলের বাউন্টি গ্রামে তারা অভিযান চালায়। অভিযানের অংশ হিসেবে বিমান হামলাও চালানো হয়। এতে ওই এলাকায় বেশ কয়েকজন জঙ্গি নিহত হয়। ওই সেনা অভিযানে বিয়ের কোনো অনুষ্ঠানে হামলা চালানো হয়নি বলে ফ্রান্সের সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র এএফপির কাছে দাবি করেন।

বাউন্টির গ্রামবাসী আহমাদু ঘানা বলেন, ধীরগতিতে একটি হেলিকপ্টার এসে দিনের আলোয় ওই হামলা চালায়। এতে তার দুই ভাই নিহত হয়েছেন।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, গত শনিবার মালির পূর্বাঞ্চলের মেনাকা এলাকায় ফ্রান্সের সেনাবাহিনীর সাঁজোয়া যানে আইইডির বিস্ফোরণে দুই সেনা নিহত হয়। প্রায় একই ধরনের হামলায় কদিন আগে ফ্রান্সের তিনজন সেনা নিহত হয়। আল–কায়েদা দলের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট গ্রুপ টু সাপোর্ট ইসলাম অ্যান্ড মুসলিমসের (জিএসআইএম) জঙ্গিরা এই হামলার দায় স্বীকার করে।

আফ্রিকার সাহেল অঞ্চলে ফ্রান্সের ৫ হাজার ১০০ সেনা রয়েছে। ফ্রান্সের সেনাবাহিনী ২০১৩ সাল থেকে মালি, চাদ, নাইজার, বুরকিনা ফাসো ও মৌরিতানিয়ার স্থানীয় সরকারের সঙ্গে মিলে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযানে রয়েছে।

%d bloggers like this: