loading...

বেনাপোল বাজার কমিটির অর্থ সহযোগিতার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে পূর্ণনির্মাণ ও সম্প্রসারণ প্রকল্পেরশুভ উদ্বোধন

0

বেনাপোল(যশোর)প্রতিনিধি: বেনাপোল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পূর্ণনির্মান ও সম্প্রসারণ প্রকল্পের বেনাপোল বাজার কমিটির অর্থ সহযোগিতার শুভ উদ্বোধন ও দোয়া অনুষ্ঠান বেনাপোল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও বেনাপোল বাজার ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি আয়োজনে সোমবার আসর বাদ বেনাপোল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামানের সভাপতিত্বে বেনাপোল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বেনাপোল বাজার বন্ধের দিন শনিবার ব্যতীত সপ্তাহের ছয়দিন মসজিদের নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত এই অর্থ আদায় করা হবে৷আজ থেকে দানের অর্থ উঠানো শুরু বেনাপোল বাজার ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে দুইজন আদায়কারী মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান ও শওকত আলীকে বেনাপোল বাজারে দানের অর্থ উঠানোর দায়িত্ব প্রদান করা হয়। বেনাপোল বাজার কমিটির পক্ষ থেকে তাদের হাতে দুটি দান বাক্স ও বিশেষ কায়দায় তৈরি দুটি জ্যাকেট দেয়া হয়।

এসময় সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সভাপতি বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশন এর আলহাজ্ব শামসুর রহমান ও বর্তমান সভাপতি আলহাজ্ব মফিজুর রহমান স্বজন, সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক লতা, বেনাপোল বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আজিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বজলুর রহমান, বেনাপোল ট্রাক মালিক ট্রান্সপোর্ট সমিতির সভাপতি কামাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আজিম উদ্দিন গাজী, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এনামুল হক মুকুল ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন ,বেনাপোল বাজার কমিটির প্রচার সম্পাদক, সীমান্ত প্রেসক্লাব বেনাপোল এর সাধারণ সম্পাদক ও জয়যাত্রা টিভির প্রতিনিধি মোঃ আয়ুব হোসেন পক্ষী প্রমুখ।

বেনাপোলের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সভাপতি আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বলেন, আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন তার ইবাদত করার জন্য।আর এই ইবাদতের মধ্যে সর্বোত্তম ইবাদত হল নামায।আর এই নামায মসজিদে আদায় করা রাসূল সঃ এর সুন্নত।সে জন্যই যুগে যুগে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মাধ্যমে অসংখ্য মসজিদ নির্মিত হয়েছে,আজও হচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও হবে ইনশাআল্লাহ। তিনি আরো বলেন রাসূল সঃবলেছেন ,’’যে ব্যক্তি পাখির বাসার মত অথবা তার চেয়ে ছোট আকারের একটি মসজিদ আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য নির্মাণ করে দেবে আল্লাহ তার জন্য বেহেস্তে একটি গৃহ নির্মাণ করে দেবেন’’তাছাড়া সদকায়ে জারিয়া হিসেবে মসজিদ যতদিন থাকবে ততদিন আপনার পূন্যের পাল্লাও ভারি হতে থাকবে। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ সামর্থ না থাকার কারনেই আজ আপনাদের কাছে আকুল আবেদন।

আপনার সামর্থ অনুযায়ী আল্লাহর ঘর মসজিদ নির্মাণে সহযোগিতা করুন। হোকনা যত সামান্য তাতে কি সবাই মিলে চেষ্টা করলে আল্লাহপাকের একটি ঘর মসজিদ নির্মাণ করা কঠিন কিছু হবে না। আর আপনি কোন কারনে না পারলেও আপনার পরিচিত জনদের বলুন,হয়তো বা তারা এগিয়ে আসবে।উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে মুসলমান জাতির কল্যাণে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়, এই দোয়া পরিচালনা করেন বেনাপোল কেন্দ্রিয় জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আজিজুল হক।

loading...
%d bloggers like this: