ঢাকা ২৮.৯৯°সে ২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পানিতে ডুবে মৃত্যুর পরদিন দুই যুবকের লাশ উদ্ধার

ময়মনসিংহে পানিতে ডু্বে মৃত্যুর পরদিন দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতরা হলেন, জেলার গৌরীপুর উপজেলার সিধলা ইউনিয়নের গোয়ালাকান্দা গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে এমদাদ মিয়া (২২)। সে বিল থেকে কলমি শাক তুলে বাজারে বিক্রি করতো।

অপরজন জেলার গফরগাঁও উপজেলার যশরা ইউনিয়নের শেখের কান্দা গ্রামের মৃত শাহেদ আলীর ছেলে জামাল উদ্দিন (৪০)। সে পেশায় ভ্যান চালক ছিলেন।

রবিবার (১১ জুলাই) দুপুরে গৌরীপুর উপজেলার সিধলা ইউনিয়নের বলা বিল থেকে এমদাদ মিয়ার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে ওই দিন সকাল ১০ টার দিকে গফরগাঁও উপজেলার শিবগঞ্জ বাজার এলাকার চৌরাস্তা সংলগ্ন একটি পুকুর থেকে জামাল উদ্দিনের লাশ উদ্ধার করেন স্থানীয়রা।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার বিকালে নিহত এমদাদ মিয়া বলা বিলে কলমি শাক তুলতে যান। সন্ধ্যা পেরিয়ে রাত হয়ে গেলেও এমদাদ বাড়ি না ফেরায় পরিবারের লোকজন তাকে খুঁজতে শুরু করে। পরে আজ সকালে রোববার স্থানীয় ও পরিবারের লোকজন নৌকা নিয়ে বলা বিলে খোঁজ শুরু করলে বিলের পানিতে এমদাদের মরদেহ ভাসতে দেখে। পরে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। স্থানীয়দের ধারণা সাতার না জানায় এমদাদ মিয়া পানিতে ডুবে মারা যেতে পারেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গৌরীপুর থানার থানার ওসি খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী বলেন, যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে পানিতে ডুবে তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

স্থানীয়রা জানায়, জেলার গফরগাঁও উপজেলার শিবগঞ্জ ইউনিয়নের শেখের কান্দা গ্রামের নিহত জামাল উদ্দিন পেশায় একজন ভ্যান চালক।শনিবার বিকেলে সে ভ্যান গাড়ি নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। কিন্তু, রাতে বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকজন বহু জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান করতে পারেননি। পরদিন রবিবার সকাল ১০টার দিকে শিবগঞ্জ চৌরাস্তা সংলগ্ন সুরুজ সরকারের রাইচ মিলের পিছনে মজা পুকুর পাড়ে জামাল উদ্দিনের জুতা ও মোবাইল ফোন পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে স্থানীয়রা পুকুরে খোঁজাখুজি করে জামাল উদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে গফরগাঁও থানার এসআই মঞ্জুর রহমান বলেন, স্থানীয় কাছে বিষয়টি জানতে পারছি নিহত জামাল উদ্দিন মৃগি রোগী ছিল। তবে, এ বিষয়ে থানায় কেউ কোন অভিযোগ করেনি




আপনার মতামত লিখুন :

এক ক্লিকে বিভাগের খবর