বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে কুহালং ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্য ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা নিহত হয়েছে।

0

মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম: বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি:
সোমবার রাত সাড়ে আটটার দিকে ইউনিয়নের বাকিছড়া এলাকার মাঝের পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম চাইন ছাহ্লা(৩৮) ।
তিনি বান্দরবান সদর উপজেলার কুহালং ইউপির ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। ঘটনার পর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বান্দরবান সদর হাসপাতাল পরে অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১১ টার দিকে তিনি মারা যান। ঘটনার পর সেনাবাহিনী ও পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান নিয়েছে ।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম জানিয়েছেন ইউপি সদস্য চাইন ছাহ্লাকে বাকি ছড়া লামার পাড়ার বাসিন্দা মংউসে মারমা বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পড়ে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা গুলি করলে ইউপি সদস্য গুর“তর আহত হয়। স্থানীয়রা গুরুতর আহত ইউপি সদস্যকে উদ্ধার করে প্রথমে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রাতে তিনি মারা যান। কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাৎক্ষণিকভাবে তেমন কিছু জানা যায়নি।

তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন দীর্ঘদিন থেকে আধিপত্যের লড়াইয়ে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল জনসংহতি সমিতির সাথে আওয়ামী লীগের বিরোধ চলে আসছে। অন্যদিকে মগ ন্যাশনাল পার্টির আধিপত্য ও জনসংহতি সমিতির সংস্কার গ্রুপের আবির্ভাব নিয়ে এলাকায় ব্যাপক আলোচনা চলছে। ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা চলমান দ্বন্ধের রেশ হতে পারে বলে জানান স্থানীয়রা।

%d bloggers like this: