বদলগাছীতে আরক-মাউল-লাহম সিরাপে ঝুঁকছে মাদকসেবীরা

0

প্রতিনিধি বদলগাছী (নওগাঁ):
নওগাঁর বদলগাছী উপজেলায় মাদকসেবীরা আরক-মাউল-লাহম সিরাপে ঝুঁকছে বলে কতিপয় মাদকসেবী ও এলাকাবাসীর ভাষ্যে জানা গেছে। আরক-মাউল-লাহম নামক ১০০ মিলি সিরাপটি উৎপাদন করছে মুসলিম ফার্মাসিটিক্যাল (ইউনিয়ানি) রাজশাহী নামক একটি প্রতিষ্ঠান। ১০০ মিলি এই সিরাপটি বিক্রি করা হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা দামে। প্যাকেটে শারীরিক দূর্বলতা, যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি সহ অনেক ব্যাধি থেকে মুক্তি পাওয়ার কথা লিখা আছে।
কিন্তু মাদকসেবীরা জানান, সিরাপটি পান করলে ইয়াবা/ফেন্সিডিলের মত নেশা ধরে। নেশায় আমেজ সৃষ্টি করলেও ঘুম আসতে বিলম্ব হয়, তখন অশান্তি জনক পরিস্থিতির উদ্যোগ হওয়ায় আবারও ১ বোতল পান করার বাসনা জাগ্রত হয় ঘুমের আসায়। তারা আরও বলেন নেশা জাতীয় কোন দ্রব্য মিশিয়ে সিরাপটি উৎপাদন করে বিভিন্ন কৌশুলে বাজারজাত করা হচ্ছে। মাদক বিরোধী অভিযানের পূর্বে থেকেই সিরাপটি বদলগাছীর বাজার দখলে রেখেছে। মাদক বিরোধী অভিযানের পর থেকেই মাদকসেবীরা মাদকদ্রব্য না পাওয়ায় মাদক সেবীরা সিরাপটির প্রতি অধিকহারে আকৃষ্ট হয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়, বর্তমানে মাদকসেবীরা কোন জায়গায় মাদকদ্রব্য না পাওয়ায় এই সুযোগে সিরাপ বিক্রেতারা মূল্য বাড়িয়ে ৭০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি করছে। উপজেলার ছোট-বড় মোনহারি ও ডোকের দোকান গুলোতে উক্ত নেশা জাতীয় সিরাপটি অত্যন্ত সতর্কতার সাথে বিক্রি করা হচ্ছে ।
বদলগাছী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জালাল উদ্দীন এর সংগে কথা বললে উক্ত নেশা জাতীয় সিরাপটি সম্পর্কে তিনি অবগত নন। তবে তিনি জানান বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
মুসলিম ফার্মাসিটিক্যাল (ইউনিয়ানি) রাজশাহী এর কোন মোবাইল বা ফোন নম্বর না পাওয়ায় কারণে প্রতিষ্ঠানটির সংগে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এ এলাকার যুব সমাজকে রাক্ষার্থে উপজেলা সচেতন মহল সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

%d bloggers like this: