ফ্রিজ ছাড়াই ইনসুলিন সংরক্ষণের উপায়

0

স্বাস্থ্য ডেস্ক,
ইনসুলিন সংরক্ষণের জন্য ফ্রিজের প্রয়োজন। ইনসুলিনের কার্টিজ ফ্রিজে রেখে দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করতে হয়। কিন্তু ঝড়-বৃষ্টির এই সময়ে প্রায় বিদ্যুৎবিহীন থাকে। তখন ইনসুলিন নষ্ট হয়ে যাবার আশঙ্কা থাকে। শুধু সাধারণ মানুষই না, ওষুধের দোকানদার এবং ব্যবসায়ীরাও ইনসুলিন সংরক্ষণ নিয়ে চিন্তায়।

ইনসুলিনের কার্ট্রিজ যেগুলো ব্যবহার করা হয়নি সেগুলোকে সাধারণত ৪-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার মধ্যে রাখতে হয়। তবে যে ইনসুলিনের কার্ট্রিজ খোলা হয়ে গিয়েছে এবং ব্যবহার করা হচ্ছে তা আপনি ঘরের তাপমাত্রাতেই রাখতে পারেন। তার জন্য ফ্রিজে না রাখলেও সেই ইনসুলিন ব্যবহারযোগ্য।

সরাসরি সূর্যের আলো যাতে না লাগে এমন অবস্থায় ইনসুলিনের কার্ট্রিজ ৪ থেকে ৬ সপ্তাহ পর্যন্ত ঠিক থাকে। তাই বিদ্যুৎ না থাকার ফলে সেগুলো বাইরে থাকলে নষ্ট হয়ে যায় না।

ইনসুলিনের কার্ট্রিজ সংরক্ষণের বিষয়ে নানা ধরনের টিপস দিয়েছেন চিকিৎসকরা। তারা বলেন ‘এটা একেবারেই গুজব যে রেফ্রিজেটরে না রাখলে ইনসুলিনের কার্ট্রিজ নষ্ট হয়ে যায়। ঘরোয়া পদ্ধতিতেই সেগুলোকে সুরক্ষিত রাখা যেতে পারে। যেমন ধরুন, একটি বাটিতে পানি ভরে সেখানে রাখুন, বা বাড়িতে যদি মাটির কোনও পাত্র থাকে তার মধ্যে নতুন ইনসুলিনের কার্ট্রিজ সংরক্ষণ করতেই পারেন। এতে তার কোনও গুণ নষ্ট হবে না। তবে একেবারে ইনসুলিনের কার্ট্রিজের গলা অবধি পানি দিয়ে রাখবেন না। তাতে কোনও রকম লিকেজ থাকলে পানি যাতে না ঢুকতে পারে।’

ডিপ ফ্রিজারে কোনও ভাবেই ইনসুলিনের কার্ট্রিজ রাখা যাবে না। কারণ সেটা জমে গেলে গুণ নষ্ট হয়ে যাবে। ৪ ডিগ্রির নিচে এবং ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের উপরে রাখা হলে এটি নষ্ট হয়ে যাবে। নিদেনপক্ষে ভেজা কাপড়ে মুড়িয়ে রাখতে পারেন ইনসুলিনের কার্ট্রিজ। বাজারে গেলে সব কেনার পরে শেষে ইনসুলিনের কার্ট্রিজ কিনবেন এবং বাড়ি ফিরে সবার আগে সেটি ঠিক ভাবে সংরক্ষণ করবেন। একবার ইনসুলিনের কার্ট্রিজ বা পেন খোলা হয়ে গেলে সেটিকে ঘরের তাপমাত্রাতেই রাখার অভ্যেস করুন। সমান্তরাল ভাবে সেটিকে রাখুন। খুব গরম কিছু বা খুব ঠান্ডার কিছুর সামনে সেটিকে রাখবেন না। বিমানে যাতায়াতের সময়ও সেটিকে নিজের হাতের ব্যাগে রাখুন। কখনও ইনসুলিন মুখ খোলা রাখবেন না এবং এক্সপায়ার হয়ে যাওয়া ইনসুলিনের কার্ট্রিজ বা পেন ব্যবহার করবেন না।’

%d bloggers like this: