ফোনালাপ ফাঁস, ওসি প্রদীপকে কী পরামর্শ দিয়েছিলেন সাবেক এসপি

0

 

টেকনাফে মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের জন্য আলোচিত টেকনাফের ওসি প্রদীপকে আইনি পরামর্শ দেয়ার জন্য অনুতপ্ত হয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছেন সাবেক এসপি আল্লাহ বকশ। মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসার কল্যাণ সমিতি চট্টগ্রাম শাখার প্যাডে দেওয়া এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, ‘মেজর (অব.) সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর মামলা সাজাতে টেলিফোনে ওসি প্রদীপকে আইনি পরামর্শ দেওয়া খুব খারাপ কাজ হয়েছে।’

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর সারাদেশে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু ছিল এই ফোনালাপ। ওসি প্রদীপকে পরামর্শদানকারী এই ব্যক্তি কে ছিলেন? পরে জানা যায়, তিনি আর কেউ নন, সাবেক পুলিশ সুপার আল্লাহ বকশ চৌধুরী। বর্তমানে তিনি অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসারস কল্যাণ সমিতি, চট্টগ্রাম শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর কোন কোন ধারায় কীভাবে মামলা করতে হবে, আল্লাহ বকশ শিখিয়ে দিয়েছিলেন প্রদীপ দাসকে।

অবশ্য এ ধরনের বক্তব্যের জন্য তিনি এখন অনুতপ্ত। অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার আল্লাহ বকশ বলছেন, ওসি প্রদীপ দাস আমাকে ফোনে যা বলেছেন আমি তার উপরে তাকে পরামর্শ দিয়েছি। এরপরে আমি শুনতে পারি আসল ঘটনাটা কী ঘটছে। কিন্তু আমি তখন ঘটনার এতটা জানতাম না। সে অনেক তথ্য আমার কাছে গোপন করেছে। এই ধরণের গোপন করা লোককে তো পরামর্শ দেওয়ার প্রশ্নই উঠে না।

পুলিশের গুলিতে নিহত ব্যক্তি সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত হলে ভয়ের কী আছে এমন বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়ে আল্লাহ বকশ বলেন, সে আমার কাছে কিন্তু বলে নাই যে নিহত ব্যক্তি সেনাবাহিনীর কোন পদে আছেন। আর কর্মরত সেনাবাহিনীদের ক্ষেত্রে তদন্তের যে বাধ্যবাধকতা থাকে, অবসরপ্রাপ্তদের ক্ষেত্রে সেই বাধ্যবাধকতা থাকে না। আমি যে মন্তব্যগুলো করেছি তার জন্য আমি দুঃখিত, অনুতপ্ত, এবং দুঃখ প্রকাশ করছি। আর সিনিয়র আইনজীবীদের মতে, দায়িত্বশীল কোনো ব্যক্তি এমন কাজের দায় এড়াতে পারেন না।

চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জিয়া উদ্দিন বলেন, আমার কাছে মনে হচ্ছে সাবেক ওসি প্রদীপ তার কাছ থেকে এর আগেও এই ধরণের পরামর্শ নিয়ে মামলাগুলো সাজিয়েছেন। এই বিষয়গুলো সম্পূর্ণভাবে বেআইনি। চট্টগ্রাম সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) সভাপতি অ্যাডভোকেট আখতার কবির চৌধুরী বলেন, একজন সাবেক মেজরকে বিচারবহির্ভূত নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। সেই ক্ষেত্রে তাকে আইনের আওতায় আনার পরামর্শ না দিয়ে কীভাবে পার পাওয়া যাবে সেই পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক এসপি আল্লাহ বকশ চৌধুরী। যা খুবই দুঃখজনক। ছয় বছর আগে পুলিশের চাকুরী থেকে অবসর গ্রহণ করেন আল্লাহ বকশ।

%d bloggers like this: