loading...

ফুলবাড়িয়ায় সাধারণ মানুষের প্রশংসা কুড়িয়ে নিচ্ছেন ইউএনও আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকী

0

মোঃ আনিসুর রহমান :ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকী সাধারণ মানুষের প্রশংসা কুড়িয়ে নিচ্ছেন তার কাজের মাধ্যমে । তার নেতৃত্বে ফুলবাড়িয়া উপজেলা প্রশাসনের কার্যক্রম সুন্দরভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রতিটি ক্ষেত্রেই প্রাণ চঞ্চল ফিরে এসেছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ভিশন- ২০২১ এর ধারাবাহিকতায় রক্ষায় উপজেলা প্রশাসনের উপজেলা নির্বাহী অফিসারের প্রধান কাজ হল, উপজেলার সকল বিভাগের কাজকর্মের সমন্বয় সাধন করা। মাদক মুক্ত, যৌতুক ও বাল্যবিবাহ রোধ ও জঙ্গীমুক্ত সামাজিক ব্যবস্থার গুরুত্বপূর্ণ কাজের ভার তার উপর। এ ছাড়াও একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একটি উপজেলার সকল দায়িত্ব তদারকি করে থাকেন। পাশাপাশি জেলার সঙ্গে সমন্বয় করে তিনি অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। সাধারণ প্রশাসনসহ রাজস্ব, ফৌজদারি ও উন্নয়ন প্রশাসনের দায়িত্ব পালনের ভার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও)। এ ছাড়াও অন্যান্য দায়িত্ব হল আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তদারকি ও বাস্তবায়ন, বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূযোর্গ মোকাবেলায় পূর্ব প্রস্তুতি ও পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়ন। ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রকল্প উন্নয়ন বাস্তবায়ন, আশ্রায়ন প্রকল্প, আদর্শগ্রাম, আবাসন প্রকল্প গ্রহণ ও তাদের বাস্তবায়ন, অসহায় মানুষদের বিভিন্ন আশ্রায়নে সংস্থাপন করন। আবাসনবাসীদের ঋণ প্রদান ও তাদের স্বাভলম্বী করা, উপজাতিদের ঋণ প্রদান এবং তাদের স্বাবলম্বী করা, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা পরিদর্শন এবং তাদের শিক্ষার মানউন্নয়ন করা, স্থানীয় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ নিষ্পত্তি করা, ইউনিয়ন পরিষদে ট্যাক্স আদায়ের জন্য বিভিন্ন ধরনের পরিকল্পনা গ্রহন করা ছাড়াও কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচি, দূযোর্গকালীন ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ ও ভিজিডি, ভিজিএফ, অতি দরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচি বাস্তবায়ন এবং সরকারের নতুন কর্মসূচি সম্পর্কে জনগণকে অবহতি করণ। ফুলবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে যোগদানের পর থেকেই এ সকল কাজ অত্যন্ত দক্ষতা ও বিচক্ষণতার সাথে করে যাচ্ছেন। ফলে, প্রশাসনের ফিরে এসেছে প্রাণ চাঞ্চল্য ও গতিশীলতা। ইউএনও আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকী যোগদান করার পর প্রতিটি সরকারী দপ্তরসহ জনপ্রতিনিধিদের ও সুধিমহল এবং সাংবাদিকদের নিয়ে একটি স্বচ্ছ, গতিশীল ও দূর্নীতি মুক্ত প্রশাসন গড়ে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সকল জাতীয় দিবস ও সরকারী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন দক্ষতার সাথে। তার নির্দেশে অফিসের কর্মচারী কর্মকর্তারা অত্যন্ত সু-দক্ষতার সাথে সততা ন্যায় নিষ্ঠার সাথে জনসাধারণের সেবা প্রদান করে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যে ঘুষ,দুর্নীতির বিরুদ্ধে রেড এলার্ট জারি করায় উপজেলার সাধারণ মানুষের আস্হা ও ভরসায় পরিনত হয়েছেন। তাকে পেয়ে সাধারণ মানুষ আশার বীজ বুনতে শুরু করেছেন,তারা ভরসা এবং বিশ্বাস করেন আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকীর হাত ধরেই উপজেলা দুর্নীতিমুক্ত ও উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাবে। আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকী দুর্নীতির বিরুদ্ধে যে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তাতে দুর্নীতিবাজদের ঘুম হারাম করে দিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত এই লড়াই চালিয়ে যেতে পারেন কিনা তা নিয়ে শংকা প্রকাশ করেন সচেতন মহল।কেননা ঘুষ দুর্নীতির সাথে যারা জড়িত তাহারা আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকীকে অন্যত্র বদলী করাতে সর্বোত্তক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে ধারনা করছেন তারা।তবে আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকী একজন সৎ ও কাজ পাগল কর্মকর্তা হিসেবে উপজেলাবাসীর মনে স্হান করে নিয়েছেন তার কাজের মধ্য দিয়ে।এছাড়াও বাল্য বিবাহ রোধে তিনি কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করে আসছেন। উপজেলার সাধারণ মানুষ ও সচেতন মহল বিশ্বাস করেন আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকীর হাত ধরে উপজেলা দুর্নীতি মুক্ত হবে এবং তিনিই পারবেন ফুলবাড়িয়া উপজেলাকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে

loading...
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: