পলাশবাড়ীতে সড়ক দূর্ঘটনায় অটো ভ্যানচালকসহ নিহত-২ : আহত-২

0

 

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা:

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন এলাকায় এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় ব্যাটারি চালিত অটোভ্যান চালকসহ ২ জন নিহত ও ২ যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে।

১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহত হলেন বরিশাল ইউনিয়নের সাবদিন গ্রামের মানিক চন্দ্রের ছেলে ২ সন্তানের জনক অটোভ্যান চালক নিমাই (২৮)।

ঘটনাস্থল ও বেঁচে যাওয়া এক অটোভ্যান যাত্রী সূত্রে জানা যায়, জুনদহ বাজার থেকে ৫ যাত্রী নিয়ে পলাশবাড়ী পৌরশহরে আসার পথে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন এলাকার সোনালী আঁশ পাট গোডাউনের সামনে এসে অটোভ্যানটির ডান সাইটের এক্সেল ভেঙ্গে গিয়ে মহাসড়কের ঠিক মাঝে পড়ে গেলে পিছনে থাকা ঢাকা থেকে রংপুর অভিমুখী দ্রুতগামী একটি অজ্ঞাত একটি কভারভ্যান গাড়ীকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

এ দূঘটনায় গুরুতর আহত অপর দুই যাত্রী বরিশাল ইউনিয়নের নিখিল চন্দ্রের ছেলে খোকন (১৮), আব্দুল মজিদ ও আব্দুল লতিফ হাজীকে চিকিৎসার জন্য পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার খোকন (১৮) কে মৃত্যু ঘোষণা করে।

পলাশবাড়ী থানার ওসি মাসুদার রহমান মাসুদ সড়ক দূর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
পলাশবাড়ীতে সড়ক দূর্ঘটনায় অটো ভ্যানচালকসহ নিহত-২ : আহত-২

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন এলাকায় এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় ব্যাটারি চালিত অটোভ্যান চালকসহ ২ জন নিহত ও ২ যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে।

১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহত হলেন বরিশাল ইউনিয়নের সাবদিন গ্রামের মানিক চন্দ্রের ছেলে ২ সন্তানের জনক অটোভ্যান চালক নিমাই (২৮)।

ঘটনাস্থল ও বেঁচে যাওয়া এক অটোভ্যান যাত্রী সূত্রে জানা যায়, জুনদহ বাজার থেকে ৫ যাত্রী নিয়ে পলাশবাড়ী পৌরশহরে আসার পথে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন এলাকার সোনালী আঁশ পাট গোডাউনের সামনে এসে অটোভ্যানটির ডান সাইটের এক্সেল ভেঙ্গে গিয়ে মহাসড়কের ঠিক মাঝে পড়ে গেলে পিছনে থাকা ঢাকা থেকে রংপুর অভিমুখী দ্রুতগামী একটি অজ্ঞাত একটি কভারভ্যান গাড়ীকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

এ দূঘটনায় গুরুতর আহত অপর দুই যাত্রী বরিশাল ইউনিয়নের নিখিল চন্দ্রের ছেলে খোকন (১৮), আব্দুল মজিদ ও আব্দুল লতিফ হাজীকে চিকিৎসার জন্য পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার খোকন (১৮) কে মৃত্যু ঘোষণা করে।

পলাশবাড়ী থানার ওসি মাসুদার রহমান মাসুদ সড়ক দূর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

%d bloggers like this: