নড়াইলে ব্যুরো বাংলাদেশ লক্ষীপাশা শাখা ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে প্রতারণাসহ বিবিধ অভিযোগ \ উকিল নোটিশ প্রদান

0

 
উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ
ব্যুরো বাংলাদেশ নড়াইলের লক্ষীপাশা শাখার ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে প্রতারণাসহ বিবিধ অভিযোগ পাওয়া গেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ ৯বছর যাবৎ ব্যুরো বাংলাদেশ নামক ঋণদানকারী সংস্থাটি লক্ষীপাশা গ্রামের সৈয়দ শাহিদুর রহমান তনুর বাড়িতে মাসিক চুক্তিতে বাসাভাড়া নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল।

৩ বছর পরপর ভাড়া চুক্তি নবায়ন ও আলোচনার মাধ্যমে ভাড়া পুনঃনির্ধারণ করে এযাবৎ কার্যক্রম চলছিল। বিস্তারিত আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়ের পাঠানো তথ্য ভিত্তিতে জানা যায় সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে,ব্যুরো বাংলাদেশ নড়াইলের লোহাগড়া শাখার ব্যবস্থাপকের চাহিদা মাফিক বাড়ির মালিক নিজেই ভাড়ার অফিসটি লাখ লাখ টাকা ব্যয় করে আধুনিকরণ এর কাজ সম্পন্ন করেছেন। কিন্তু হঠাৎ করেই শাখা ব্যবস্থাপক আঃ কাদের হঠকারি সিদ্ধান্ত নিয়ে বাড়ির মালিককে আর্থিক ক্ষতিতে ফেলেছেন। কোন প্রকার লিখিত নোটিশ বা মৌখিক নোটিশ ছাড়াই শাখা ব্যবস্থাপক অফিসিয়াল কাগজপত্র সরিয়ে ছেলছেন গোপনে। একাধিক সূত্র অভিযোগকরেছেন, শাখা ব্যবস্থাপক আঃ কাদের দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় অনৈতিক কাজের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে পড়েছেন।

তিনি বেশ কয়েকবছর আগে স্থানীয় একাধিক নারীর সাথে গভীর সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন এবং যাচাই-বাছাই না করে তাদের লাখ লাখ টাকা ঋণ দিয়েছেন। ঋণের টাকা তুলতে এখন কালক্ষেপ্পন হচ্ছে। সূত্র আরো জানায়, শাখা ব্যবস্থাপক আঃ কাদের স্থানীয় একটি পরিবারকে লাখ লাখ টাকা ঋণ দিয়ে তা তুলতে রীতিমত হিমসিম খাচ্ছেন। ওই পরিবারের সাথে সম্পৃক্ত এক সুন্দরী নারী শাখা ব্যবস্থাপক কে ভিন্ন কায়দায় ম্যানেজ করেছেন। এলাকার অনেকেই ধারণ করছেন নারী প্রেমে মক্ত হয়েই শাখা ব্যবস্থাপক আঃ কাদের তার অপকর্মের সুবিধার্তে বর্তমান বাসা বদল করে নতুন বাসায় যাচ্ছেন। এসব ঘটনায় এলাকার যুবকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

বিষয়টি লোহাগড়া পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন অভিযোগকারিরা। ৫ ডিসেম্বর নড়াইল জজ কোর্টের এ্যাডভোকেট শেখ আররাফ হোসেন প্রতারণা সংক্রান্ত বিষয়ে ওই শাখার ব্যবস্থাপককে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করেছেন।অভিযোগ বিষয়ে লোহাগড়া শাখা ব্যবস্থাপক আঃ কাদের এর(০১৭৩৩২২০৪৪৬)নাম্বারে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।