loading...

ধাপেরহাটে সাংবাদিকের হস্তক্ষেপে ছেলে ধরা গুজবের নির্যাতন থেকে রক্ষা পেল নারী

0

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার ধাপের হাটে সাংবাদিক হস্তক্ষেপে মারপিটের হাত থেকেনরক্ষা পেল এক অজ্ঞত নারী।২৪ জুলাই সকাল ১২ টায় সাদুল্যাপুর উপজেলার ধাপের হাটে এ ঘটনাটি ঘটে।
জানা যায়,ঢাকা রংপুর মহাসড়কের ধাপেহাট এলাকায় এক নারীকে নিয়ে  হঠাৎ ছেলে ধরা গুজব সৃষ্টি করে। এমন সময় উত্তেজিত জনতার গণধোলাই হতে এ নারীকে রক্ষা করেন সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম। তিনি মেয়েটিকে নিজ হেফজতে নিয়ে  ধাপেরহাট পুলিশ ফাড়িতে খবর দেন। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল এসে মেয়েটিকে পুলিশে হেফাজতে নিয়ে যায়। 
সাংবাদিক আমিনুর জাসায়, ২৪ জুলাই বুধবার দুপুর ১২ টায় পীরগঞ্জের শ্যামলী নামের এ মেয়েটির ধাপের হাট সি,এন,জি ষ্ট্যান্ডে ভাড়া নিয়ে কথা কাটা শুরু হলে পাবলিক মিথ্যা গুজব ছরায় ছেলে ধরা হিসাবে। নিমিশে কথাটি ধাপের হাট শহড়ে ছড়িয়ে পরে। মেয়েটিকে দেখার জন্য নিমিশেই অনেক লোক সমাগম হয় এসময় এগিয়ে যান সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম। 
সাংবাদিক পরিস্থিতি বুজতে পেরে  ধাপের হাট ফারি থানা পুলিশ কে  জানায়।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফাঁড়ির পুলিশের  এস,আই বাবুল  ছুটে এসে মেয়েটিকে  ধাপরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে গিয়ে এ নারীর ঠিকানা যাচাই বাছাই করে দেখা যায়। সে একজন ভালো মানুষ তবে একটু ভারসাম্যহীন রয়েছে। 
পরিবারের সদস্যদের সহিত পুলিশের কথা হওয়ার পরে এ বিষয়ে নিশ্চিত হয় পুলিশ।
ধাপেরহাট ফাঁড়ির ইনচার্জ জানায়, সাংবাদিক ও পুলিশের হস্তক্ষেপে এ নারী কোন প্রকার  মারধারের  করতে দেয়নি তবে অনেকেই গালিগালাজ করেছে অল্পের জন্য গুজবের হাত থেকে রেহাই পেল শ্যামলী বেগম। 
এস আই বাবুল জানান, এ নারী বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। পরিবারের সদস্যরা আসলে তাদের হাতে এই নারীকে তুলে দেওয়া হবে।

loading...
%d bloggers like this: