জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার আশঙ্কা

0

জামালপুরে যমুনা নদীর পানি কমলেও বাড়ছে ব্রহ্মপুত্রের পানি। এতে বন্যা পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী রূপ নিতে যাচ্ছে বলে আশঙ্কা করছে স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড। এদিকে দুর্ভোগ বেড়েই চলছে বানভাসীদের। তবে তাদের দুর্ভোগ কমাতে ত্রাণ বিতরন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে জেলা প্রশাসন।

জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবু সাঈদ জানান, কয়েকদিন পানি কমলেও আবারো যমুনা নদীর পানি বাড়ার শঙ্কা রয়েছে। এছাড়া ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এতে বন্যা পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী রূপ নিতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তিনি।

তিনি আরও জানান, গত মঙ্গলবার দুপুর ৩টায় যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ৮০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। এছাড়াও জামালপুর ফেরিঘাট পয়েন্টে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপদসীমার ১৮ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

বন্যা কবলিত এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, পানিবন্দি ও বাঁধে আশ্রয় নেওয়া নিম্নআয়ের মানুষ খাবার সংকটে পড়েছে।

বন্যাকবলিত এসব মানুষের অভিযোগ, পানিবন্দি এবং বাঁধে আশ্রয় নিয়ে কর্মহীন অবস্থায় এক মাস অতিবাহিত করলেও মাত্র ৮/১০ কেজি চাল ত্রাণ সহায়তা পেয়েছেন তারা। আবার অনেক পরিবারের ভাগ্যে কিছুই জুটেনি। এসব পরিবারকে এক বেলা খেয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে। এছাড়া খাবার সংকটের পাশাপাশি গরুর খাবার ও মলমূত্র ত্যাগে চরম সংকটে রয়েছে বন্যার্তরা।

জামালপুর ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা নায়েব আলী জানান, বন্যার্তদের মাঝে নিয়মিতভাবে ত্রাণ বিতরন কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। পর্যায়ক্রমে ত্রাণের যোগ্য সকলকে ত্রাণ দেওয়া হবে।

%d bloggers like this: