‘জঙ্গি আস্তানা’য় আটকেপড়াদের বের করছে সেনারা

0

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার শিববাড়ি এলাকার জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শুরুর পর বাড়িটির ৫০ জনেরও বেশি বাসিন্দাকে উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডো সদস্যরা। এদের মধ্যে নারী, পুরুষ ও শিশু আছেন।

শনিবার সকাল পৌনে নয়টার দিকে লে. কর্নেল ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বে ‘আতিয়া মহলে’ অভিযান শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। দুপুর ১২টা পর্যন্ত বাড়িটিতে থাকা ৫০ জনেরও বেশি জিম্মিতে বের করতে সক্ষম হন অভিযানে অংশ নেয়া আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তাদের মধ্যে অনেক শিশুর রয়েছেন।

ভবনটি থেকে বের করে আনার সময় জিম্মি থাকা লোকজনকে বেশ আতঙ্কিত দেখা গেছে। তাদের চোখেমুখে ছিল আতঙ্কের ছাপ। ভবনটিতে আর কোনো জিম্মি আছে কিনা তা জানা যায়নি।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুসা এই খবর নিশ্চিত করেছেন।

এখন জঙ্গিদের আস্তানায় ঢোকার চেষ্টা করছে সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডো। তাদের সহায়তা করছে পুলিশের বিশেষায়িত টিম সোয়াট, র‌্যাব ও পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা।

এর আগে ৩৩ ঘণ্টা অপেক্ষার পর আজ সকাল পৌনে নয়টার দিকে জঙ্গি আস্তানায় মূল অভিযান শুরু করে কমান্ডো সদস্যরা। এজন্য আশপাশের সব সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়।

গতকাল অভিযান শুরুর পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হলেও জঙ্গিরা সাড়া দেয়নি। উল্টো তারা অভিযান চালাতে সোয়াটকে পাঠাতে বলে। পরে অভিযান চালাতে ঘটনাস্থলে আনা হয় সেনাবাহিনীর প্যারা-কমান্ডো ইউনিটকে। রাতভর পরিকল্পনার ও প্রস্তুতি নেয়ার পর সকালে মূল অভিযানে নামে প্যারা কমান্ডো ইউনিট। ভবনটিতে আর কোনো জিম্মি আছেন কিনা তা জানা যায়নি।

সকালে অভিযান শুরুর পরপরই গুলির শব্দ শোনা যায়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জঙ্গি আস্তানায় ঢোকার চেষ্টা করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে অভিযানে কাউকে আটক বা কেউ হতাহত হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি।

%d bloggers like this: