‘ছেলেসহ আমার বিরুদ্ধে জঘন্য অপপ্রচার চলছে’

0

নিজস্ব প্রতিবেদক,

তিনি নিজে এবং তার ছেলেসহ সংগঠনের বিরুদ্ধে জঘন্য কুৎসা ও অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন হেফাজতে ইসলামের আমির ও দেশের প্রবীণ আলেম আল্লামা শাহ আহমদ শফী। এ ব্যাপারে সবাইকে চোখ-কান খোলা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার বিকালে হেফাজতে ইসলামের প্রচার সম্পাদক ও তার ছেলে মাওলানা আনাস মাদানী স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে হেফাজত আমির এসব কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, হেফাজত মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরীকে সংগঠনের পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার গুঞ্জন চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। ইতিমধ্যে তাকে হাটহাজারী মাদ্রাসার সহকারী পরিচালকের পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। শফীপুত্র আনাস মাদানীর সঙ্গে বাবুনগরী ও তার সমর্থকদের বিরোধ এখন অনেকটা প্রকাশ্যে চলে এসেছে।

আল্লামা শফী বলেন, ‘রাসুলে কারিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের শান-মান, সাহাবায়ে কেরামের আজমতসহ ইসলামের ইজ্জত-সম্মান ও প্রাধান্য সুরক্ষায় হেফাজতে ইসলামের আত্মপ্রকাশ। জাতির এক ক্রান্তিলগ্নে দেশের নাস্তিক্যবাদী অপশক্তি যখন প্রকাশ্যে আল্লাহ ও তার রাসুল সা. এবং ইসলামের বিভিন্ন মৌলিক বিষয়াবলী সম্পর্কে সুস্পষ্ট বিদ্রোহ ঘোষণা করে, অবমাননাকর বক্তব্য প্রদান করে, তখনই হেফাজতে ইসলাম এসবের বিরুদ্ধে গর্জে উঠে। দেশের কোটি কোটি মানুষের ঈমান-আকিদা ও ইসলামি মূল্যবোধ রক্ষায় রাজপথে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেয়। আবারও যদি কেউ আল্লাহ ও তার রাসুল সা., সাহাবায়ে কেরাম তথা ইসলামের বিরুদ্ধে কোনো কথা বলে হেফাজতে ইসলাম পুনরায় গর্জে উঠবে।’

বিবৃতিতে আল্লামা শফী বলেন, ‘ইসলামবিরোধী ওই অপশক্তি প্রকাশ্য মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়ে ইদানীং পেছনের দরজায় হামলা করছে। হেফাজতের ভেতরে ঘাঁপটি মেরে বসে থাকা এবং হেফাজতের কোনো স্তরের কমিটিতে না থাকা একটি সিন্ডিকেট জ্ঞাতে-অজ্ঞাতে নাস্তিক্যবাদীর খেলনায় পরিণত হয়েছে। হেফাজতের বিরুদ্ধে কোনো দুষ্টচক্রের ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না।’

আল্লামা শফী বলেন, ‘হেফাজত কোনো রাজনৈতিক দল নয়। সরকারের পক্ষের কিংবা বিপক্ষের শক্তি নয়। পরিতাপের বিষয় হচ্ছে। একটি চক্র হেফাজতকে বিরোধী দলের ভূমিকায় নিয়ে যেতে চায়। যা হেফাজতের লক্ষ্য উদ্দেশ্যের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

নাস্তিক্যবাদী অপশক্তি প্রকাশ্যভাবে হেফাজতে ইসলামের মোকাবিলা করতে পারবে না।’

বিবৃতিতে আল্লামা শফী হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ‘কোনো সিন্ডিকেট, অপশক্তির ষড়যন্ত্র এ দেশের ঈমান রক্ষার আন্দোলন হেফাজতকে ধ্বংস করতে পারবে না- ইনশাআল্লাহ। বরং তারাই ধ্বংস হয়ে যাবে।

%d bloggers like this: