চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালে বাংলাদেশি রাহাত

0

অনলাইন ডেস্ক:

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারে মরিয়া সারা বিশ্ব। একটি কার্যকরী টিকা উদ্ভাবনে দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানী ও গবেষকরা। এরই অংশ হিসেবে চীনা কোম্পানি সিনোফার্ম নিজেদের ভ্যাকসিনের দু’টি পরীক্ষা শেষ করেছে। আর তাদের এই করোনার ভ্যাকসিনের পরীক্ষায় প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এ ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন রাহাত আহমেদ রাফি নামে ২৬ বছরের এক তরুণ। এর আগে চীনে এই ভ্যাকসিনটির দু’টি পরীক্ষা হয়। ২০০ এর বেশি দেশের নাগরিক থাকায় তৃতীয় পরীক্ষার জন্য আরব আমিরাতকে বেছে নেন গবেষকরা।

কার্যকারিতা পরীক্ষার এ ধাপে আরব আমিরাতে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে অংশ নেন রাহাত আহমেদ রাফি নামে ২৬ বছরের এক তরুণ। টিকা গ্রহণের পর এখনো কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি বলে জানান তিনি। করোনার ভ্যাকসিনগ্রহণকারী রাহাত আহমেদ রাফি একটি বেসরকারি টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘এখনও কোনো সমস্যা হয়নি। তবে, মাঝে মাঝে মাথা ব্যথা করে। সাধারণ মানুষ ও জনসাধারণ থেকে দূরে থাকি।’ গত ২৪ জুলাই ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন তিনি। ২১ দিন পর দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করতে হবে বলে জানান রেডক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করা এই তরুণ।

রাহাত আহমেদ রাফি বলেন, ‘আমি করোনাভাইরাসের টেস্টিং সেন্টারে কাজ করেছি। যখন শুনলাম তারা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল দিবে; সঙ্গে সঙ্গে রেজিস্ট্রেশন করি। এবং তাদের হট লাইনে যোগাযোগ করে অ্যাপয়েনমেন্ট নিয়ে নেই।’ আমিরাতে ১৫ হাজার মানুষের ওপর চীনের এই ভ্যাকসিনটির পরীক্ষা চালানো হবে।

%d bloggers like this: