চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রতিবন্ধী মেকারের ২৯টি মোবাইল ও দেড়লাখ টাকা আত্মসাত, শিবগঞ্জ থানার দুই এএসআই কে লাইন ক্লোজড

0

স্টাফ রিপোর্টারঃ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলাধীন বিনোদপুর এলাকায় মিস্টার আলী নামে এক প্রতিবন্ধী মেকারের কাছ থেকে নিয়ে যাওয়া ৩৯টি মোবাইল ও দেড়লাখ টাকার মধ্যে ২৯টি মোবাইল ও দেড়লাখ টাকা আত্মসাত করেছে  শিবগঞ্জ থানার এএসআই মাহবুবব ও এএসআই মতিয়ার রহমান। পরে এই দুইজন এএসআই কে ক্লোজড করা হয়েছে। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করতে  শিবগঞ্জ থানার ওসি মো. রমজান আলীর কাছে জানতে চাইলে ওসি রমজান আলী জানান  এরআগেও এই দুইজন এএসআই একই ধরণের ঘটনার সাথে জড়িত ছিল বলে তার কাছে অভিযোগ রয়েছে। bosku_adতদন্তের পর তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।গত ১৪ মার্চ বেলা ০১টার দিকে শিবগঞ্জ থানার এএসআই মাহবুব ও এএসআই মতিয়ার রহমান বিনোদপুর চাঁদশিকারী গ্রামের প্রতিবন্ধী মোবাইল মেকার মিস্টার আলীর বাড়িতে কয়েকজন পুলিশকে সাথে নিয়ে অভিযান চালায় এবং তার বাড়িতে থাকা অন্যের সার্ভিসিং করতে দেয়া ৩৯টি পুরাতন মোবাইল সেট ও তার বাড়িতে রাখা দেড় লাখ টাকা নিয়ে যান।এসময় মিস্টার আলীর মা পুলিশের কাছে এর কারণ জানতে চাইলে এএসআই মাহবুব তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এঘটনাটি মেকার মিস্টার আলী শিবগঞ্জ থানার ওসিকে জানালে ওসি পরদিন থানায় এসে তার মোবাইল ও টাকা নিয়ে যেতে বলেন। এরই মধ্যে এএসআই মাহবুব প্রতিবন্ধী মেকারকে মোবাইল ফোনে জানান, ওসিকে দুই লাখ টাকা না দেয়া হলে তার নামে মামলা দিয়ে হয়রানী করা হবে বলে মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন। শেষ পর্যন্ত এই এএসআই মাহবুব এর দাবিকৃত দুইলাখ টাকা দিতে না পারায় থানায় মাত্র ১০টি মোবাইল জব্দ দেখিয়ে এই প্রতিবন্ধী মেকারের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন এবং বাকি ২৯টি মোবাইল ফোন ও দেড় লাখ টাকা আত্মসাত করেন এএসআই মাহবুব ও এএসআই মতিয়ার রহমান।এব্যাপারে এএসআই মাহবুব ও এএসআই মতিয়ার রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে উভয়ই বিষয়টি নিয়ে সংবাদটি দুর্নীতি বার্তা.কম অনলাইন পোর্টাল কে প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করেন।

%d bloggers like this: