loading...

গৌরীপুর মুজিব বর্ষে ঘর পেল১৮ পরিবার

0

ফারুক আহাম্মদ :
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের এবারের নির্বাচনী ইশতেহার ‘গ্রাম হবে শহর’ এবং প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য, কেউ গৃহহীন থাকবে না। তারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের অংশ হিসেবে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টিআর) ও কাজের বিনিময়ে টাকা (কাবিটা) কর্মসূচির বিশেষ বরাদ্দে গৃহহীন মানুষের জন্য দুর্যোগ সহনীয় ঘর তৈরি প্রকল্পে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে ২ রুম বিশিষ্ট (২লক্ষ ৯৯ হাজার ৮৬০ টাকা প্রায়) বরাদ্দে ১৮ টি সেমি পাকা ঘর নির্মান চলমান কাজের মধ্যে অচিন্তপুর ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামের জমি আছে ঘর নেই হত দরিদ্র মো.সিদ্দিক মিয়ার নামে বরাদ্দকৃত ঘরের আনুস্টানিক ভাবে আজ (১৯ শে ফেব্রুয়ারি) বুধবার বিকেলে যৌথভাবে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন,গৌরীপুর উপজেলা
পরিষদের চেয়ারম্যান মোফাজ্জল
হোসেন খান ও গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেজুঁতি ধর, এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহেল রানা পাপ্পু,সাংবাদিক ফারুক আহাম্মদ,শাহজাহান কবির,ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেজুঁতি ধর জানান, জমি আছে ঘর নেই এমন ব্যাক্তিদের নামে বরাদ্দকৃত ঘরের কাজ আগামী ১৭ মার্চ মুজিব বর্ষ শুরু হবার আগেই গৌরীপুরে ১৮ টি ঘর ১৮ জনকে বুঝিয়ে দেয়া হবে।
উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খান বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের অংশ হিসেবে সারা বাংলাদেশের ন্যায় গৌরীপুরের পাচ্ছেন হত দরিদ্রদের নামে বরাদ্দকৃত ১৮টি পরিবারের নামে ১৮ টি ঘর। শেখ হহাসিনার সরকার সারাদেশের ন্যায় গৌরীপুরে ক্রমান্নয়ে সকল অসহায় গৃহহীনরা ঘর পাবেন।ঘরের বরাদ্দ পাওয়া হত দরিদ্র মো. সিদ্দিক মিয়ার কাছে তার অনুভুতির কথা জানতে চাইলে তিনি অত্যন্ত আবেগে কেঁদে ফেলেন এবং তিনি মাননীয় প্রধান মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনকালে অনান্যদের মাঝে  উপস্থিত ছিলেন, অচিন্তপুর ইউনিয়ন পরিষদ সচিব আব্দুল আওয়াল,ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. শহিদ মিয়া, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল রানা,সিদ্দিক মিয়া সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

loading...
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: