গৌরীপুর তুচ্ছ ঘটনায় কলেজ ছাত্র খুন, প্রতিবাদে বিক্ষুব্দ কলেজের শিক্ষার্থী বাড়িঘর ও যানবাহন ভাংচুর-অগ্নিসংযোগ

0

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ

ময়মনসিংহের গৌরীপুর সরকারি কলেজের এইচএসসি পরিক্ষার্থী শাকিল আহাম্মেদ (১৮) কে নৃশংসভাবে খুনের ঘটনায় শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রতিবাদের ঝড় বইছে। এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) বেলা ১১টায় গৌরীপুর সরকারি কলেজের শত শত শিক্ষার্থীরা শহরে মিছিল, সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে।

এসময় বিক্ষুব্দ শিক্ষার্থী ৩টি বাসা ভাংচুর-অগ্নিসংযোগসহ রাস্তায় চলাচলকারী প্রায় ৩০টি যানবাহন ভাংচুর করে। উল্লেখ্য গৌরীপুর সরকারি কলেজের ব্যবসায় শিক্ষা শাখার এইচএসসি পরীক্ষার্থী শাকিল আহাম্মেদকে বুধবার বিকেলে শহরের ছয়গন্ডা বাঁশ মহাল এলাকায় কতিপয় সন্ত্রাসীরা অতর্কিতে হামলা চালিয়ে মারাতক ভাবে আহত করে।

আহত শাকিলকে প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরে ওইদিনই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

শাকিলের মৃত্যুর খবরে বৃহস্পতিবার গৌরীপুর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। তারা ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও ইউএনও বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করেছে।

এসময় বিক্ষুব্দ শিক্ষার্থীরা পৌর শহরের ছয়গন্ডা এলাকায় হিমেল (২০), তমাল পাঠান (২৫) ও খেলার মাঠ এলাকায় মেহেদী হাসান মিথুনের বাসায় ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এছাড়াও শিক্ষার্থীরা রাস্তায় চলাচলকারী প্রায় ৩০টি মিনি ট্রাক, সিএনজি, অটোরিকসা ভাংচুর করেছে।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনাচার্জ দেলোয়ার আহাম্মদ জানান এ ঘটনায় সকাল থেকেই কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ শুরু করে শত শত শিক্ষার্থীরা। আস্তে আস্তে এই বিক্ষোভের মাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে শহরে ছড়িয়ে পড়ে যা সীমিত সংখ্যক পুলিশের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি। পরবর্তীতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনের মাধ্যমে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।

জানা গেছে নিহত কলেজ ছাত্র শাকিল গৌরীপুর পৌর শহরের বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন পশ্চিম দাপুনিয়া এলাকার ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের কর্মচারী শাহেদুজ্জামানের একমাত্র পুত্র।

অতি সম্প্রতি সে সেনাবাহিনীর সদস্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিল। শাকিলের মৃত্যুতে তার পরিবারসহ কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীর মাঝে শোক বিরাজ করছে।

গৌরীপুর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা জানায় ঘটনারদিন দুপুর ১২টার সময় কলেজ ক্যাম্পাসে শহরের জনৈক এক বখাটে যুবকের সাথে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে শাকিলের বাক-বিতন্ডা হয়। পরে ওইদিনই কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার সময় শহরের চয়গন্ডা এলাকায় তার ওপর সন্ত্রাসীরা সসস্ত্র হামলা চালায়।

%d bloggers like this: