গৌরীপুরে ফাঁসিতে ঝুলে নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ৩

0

স্টাফ রিপোর্টারঃ
আপনজনের অত্যাচার নির্যাতন সইতে না পেরে গলায় ফাসি দিয়ে আত্নহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর ইউনিয়নের, গাঁও রামগোপালপুর গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের পুত্র ইদ্রিস আলীর(৬০)।নিজের স্ত্রী, সন্তানদের সাথে ঝগড়া করে গলায় ফাসি দিয়ে আত্নহত্যা করেছেন বলে ধারনা পরিবারের লোকজনের।

সরজমিনে গিয়ে প্রতিবেশীদের কাজ থেকে জানাযায়, ১০/১২ বছর যাবৎ স্ত্রী সন্তানের সাথে তেমন সম্পর্ক নেই আলাদা ঘরে থাকতেন নিহত ইদ্রিস আলী। গত মঙ্গলবার(২জুন)রাতে নিজের স্ত্রী, সন্তানদের সাথে ঝগড়া করে ঘুমাতে যান। আজ (৩জুন) সকালে দরজা না খুললে স্ত্রী সন্তানদের সন্দেহ হলে দরজা খুলে দেখতেপান গলায় দড়িতে ফাসিতে ঝুলছে। তাৎক্ষনিক তারা ফাঁসি থেকে নামিয়ে দেখতে পান মৃত। মৃত্যুর সংবাদ শুনে চাকুরি স্থল থেকে নিহত ইদ্রিস আলীর কনিষ্ঠ পুত্র আজিজুল হক ছুটে আসেন বাড়িতে, বাবার এই অবস্থায় এলাকাবাসী ও আত্বীয়স্বজনদের কাছে সব কিছু জানার পর গৌরীপুর থানা পুলিশে খবর দিলে গৌরীপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখের হোসেন সিদ্দিকী ও গৌরীপুর থানার ওসি বোরহান উদ্দিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। পুত্র আজিজুল হক বাদী হয়ে ৩রা জুন বিকেলে গৌরীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে নিহত ইদ্রিস আলীর স্ত্রী সাফিয়া খাতুন( ৫০) ছেলে আলামিন( ২৪) মেয়ে বৃষ্টি আক্তারকে(১৮)গ্রেফতার করে গৌরীপুর থানা পুলিশ। অভিযোগকারী আজিজুল হক জানান, আমার বাবা কি কারনে আত্নহত্যা করল সঠিক তদন্ত করে দোষীদের বিচারের দাবী জানাই। এ বিষয়ে গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বোরহান উদ্দিন জানান অভিযোগের ভিত্তিতে তিনজন কে গ্রেফতার করা হয়েছে আরও কেউ যদি জড়িত থাকে তাহলে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

%d bloggers like this: