গৌরীপুরে ছাত্র বলৎকারের অভিযোগে মাদরাসা শিক্ষক গ্রেফতার

0

স্টাফ রির্পোটারঃ

মাদ্রাসার ছাত্রদের বলাৎকারের অভিযোগে শুক্রবার রাতে গৌরীপুর উপজেলার সহনাটি ইউনিয়নের পাছার মানিকরাজ করফুলনেছা নুরানী ও হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মোঃ বাকি বিল্লাহ উরফে মানিককে গ্রেফতার করেছে গৌরীপুর থানা পুলিশ।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সহনাটি ইউনিয়নের মানিকরাজ গ্রামের মোঃ আজিমুদ্দিন মাস্টারের পালক পূত্র মোঃ বাকি বিল্লাহ উরফে মানিক (৩৮), সে প্রায় ৭/৮ মাস পূর্বে উক্ত মাদরাসার নুরানী শাখায় প্রধান শিক্ষক হিসাবে যোগদান করে।

গত১৫ নভেম্বর সকালে ক্লাস চলাকালীন সময় নুরানী শাখার জনৈক শিক্ষার্থীকে (৯) শিক্ষক মানিক ক্লাস থেকে পাশের রুমে ডেকে নিয়ে যায় এবং ব্লাক বোর্ডে আড়ালে নিয়ে পায়ু পথে ধর্ষণ করে। এর কিছুদিন পর বিকালে খেলার সময় উক্ত শিক্ষার্থীকে ডেকে নিয়ে পূর্বের ন্যায় একই স্থানে শিক্ষক মানিক পুনরায় বলাৎকার করে। তার পর থেকে সেই শিক্ষার্থী মাদ্রাসায় যাওয়া বন্ধ করে দেয়।

গত বুধবার সকালে শিক্ষার্থীর পিতা তাকে মাদ্রাসায় দিয়ে আসে। কিন্তু সন্ধ্যায় ছেলে বাড়ি ফিরে এসেছে দেখে তার কাছে মাদরাসা থেকে ফিরে আসার কারন জানতে চায়। এসময় শিক্ষার্থী উক্ত মাদ্রাসায় আর পড়তে যাবে না বলে তার পিতাকে জানায়।

পরে মাদরাসার অপর শিক্ষক অলিউল্লাহ ওই শিক্ষার্থীর কাছে মাদরাসায় না যাবার কারন জানতে চাইলে তার কাছে শিক্ষক মানিক কতৃক বলাৎকারের ঘটনা খুলে বলে। বিষয়টি প্রকাশ হলে নুরানী শাখার জনৈক অপর এক শিক্ষার্থীও (৮) উক্ত শিক্ষক কতৃক বলৎকারের শিকার হয়েছে বলে শিক্ষক অলিউল্লাহকে জানায়।

উক্ত ঘটনায় বলাৎকারের শিকার শিক্ষার্থীর বাবা মোঃ রোকন মিয়া বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে গৌরীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বোরহান উদ্দিন খান দুর্নীতি বার্তাকে জানান, ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে উল্লেখিত এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক বাকি বিল্লাহ উরফে মানিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

%d bloggers like this: