loading...

খাগডহরে স্ত্রী কন্যাকে শ্বাসরোধে করে হত্যা স্বামী পলাতক খুনিকে গ্রেফতার করতে দুই ওসি মাঠে

0

স্টাফ রিপোর্টার:ময়মনসিংহ সদরের খাগডহরে পারিবারিক কলহের জের ধরে শ্বাসরুদে মা-মেয়ে খুন হয়েছে। এ সময় অপর মেয়ে আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনার পর ঘাতক স্বামী শফিকুল ইসলাম শাহিন পলাতক রয়েছেন। নিহতরা হলো, ফকিরবাড়ির শফিকুল ইসলামের স্ত্রী রুমা আক্তার (৩৮) ও মেয়ে নাফিয়া আক্তার। এছাড়া আহত অপর মেয়ে সাদিয়া আক্তার লাবণ্যকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার খাগডহর ইউনিয়নের ঘুন্টি ফকিরবাড়িতে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম ও ২নং ফাঁড়ির ইনচার্জ হাসান মাহমুদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় নিজ বাড়িতে স্ত্রী ও এক সন্তানকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন শফিকুল ইসলাম শাহিন। এ সময় মা-বোনকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হন সাদিয়া আক্তার লাবণ্যকেউ নরপিশাচ পিতা শ্বাসরেুদে হত্যার চেষ্ঠা করে। গুরুতর আহত লাবণ্য উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত শফিকুল ইসলাম পলাতক রয়েছে। সে পেশায় জমি ক্রয় বিক্রয়ে দালালী করতো এবং কাঠ কেনাবেচা করতো বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনার পর খবর পেয়ে পুলিশ লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে বলে জানান সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আল আমিন। পারিবারিক কলহের জেরে হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।
কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, ঘটনার পর অভিযুক্ত স্বামী পলাতক রয়েছেন। তাকে আটক করতে মাঠে নেমেছে পুলিশ। মরদেহ ময়নাতদেন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারে কোতোয়ালী ও পুলিশ মাঠে কাজ করছে।

loading...
%d bloggers like this: