এবার ফেসবুক ছাড়লেন ফারিয়া

0

বিনোদন প্রতিবেদক :

হারুন অর রশীদ অপুর সংসার ছাড়ার পর এবার সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়লেন নাট্য অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। গত শুক্রবার তাদের আনুষ্ঠানিক ডিভোর্সের পর শনি ও রবিবার ফেসবুকে দুটি লম্বা স্ট্যাটাস দেন অভিনেত্রী। সেখানে তিনি তার সংসার ভাঙার খবর জানান। এছাড়া বিচ্ছেদের সুনির্দিষ্ট কোনও কারণের উল্লেখ না করলেও কিছু ইঙ্গিতপূর্ণ কথাবার্তা লেখেন।

কিন্তু সোমবার থেকে ফারিয়ার সেই ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডিটি আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অ্যাকাউন্টটি তিনি ডি-অ্যাকটিভ করে দিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। কিন্তু কোন অভিমানে সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়লেন ফারিয়া?

সম্প্রতি ফেসবুকে বিচ্ছেদের খবর প্রকাশ করার পাশাপাশি অভিনেত্রী লিখেন, অপুর সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হলেও তাদের দুজনের বন্ধুত্ব সারাজীবন অটুট থাকবে। এর পর থেকেই ফারিয়াকে নিয়ে ট্রোল শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকেই প্রশ্ন তোলেন, ‘বিয়ের পর সাবেক স্বামীর সঙ্গে কীভাবে বন্ধুত্ব টিকে থাকে। এটা হাস্যকর।’

এছাড়া অপুর সংসারে থাকা অবস্থায়ই গত ৮ মাস ধরে ফারিয়া অন্য এক ছেলের সঙ্গে লিভ টুগেদার করছিলেন বলেও অভিযোগ করেন অনেকে। ধারণা করা হচ্ছে, এসব ট্রোল ও অভিযোগ থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতেই আপাতত সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অভিনেত্রী। তবে সত্যিটা জানা যাবে ফারিয়া মুখ খুললেই।

 

২০১৫ সালে ফেসবুকের মাধ্যমে হারুন অর রশীদ অপুর সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল অভিনেত্রী শবনম ফারিয়ার। অপু একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। তার সঙ্গে ফারিয়ার সেই পরিচয় বন্ধুত্বে রূপ নিতে সময় লাগেনি। এরপর তারা প্রেমের সম্পর্কেও জড়িয়ে পড়েন।

এর তিন বছর পর ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে অপু ও ফারিয়ার আংটি বদল হয়। বিয়ে হয় গত বছরের ১ ফেব্রুয়ারি। মিরপুর ক্যান্টনমেন্টের চোখজুড়ানো অবকাশযাপন কেন্দ্র ‘জল-জোছনা’য় খোলা আকাশের নিচে বসেছিল তাদের বিয়ের নান্দনিক আসর। আনুষ্ঠানিক বিয়ের ঠিক ১ বছর ৯ মাসের মাথায় তাদের বিচ্ছেদ হলো।

%d bloggers like this: