loading...

ঈশ্বরগঞ্জে ইত্তেফাকুল উলামার বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত

0

খাইরুল ইসলাম আল আমিনঃ

ভোলার বোরহানউদ্দিনের ঘটনার প্রতিবাদে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ইত্তেকাকুল উলামা বৃহত্তর মোমেনশাহী, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা শাখার বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

সোমবার দুপুরে ঈশ্বরগঞ্জ মার্কাজ মসজিদ থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের উপজেলা পরিষদ চত্বরে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

ফেসবুকে হযরত মুহাম্মদ (সা:) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের সূত্র ধরে ভোলার বোরহানউদ্দিনে রোববার ‘তৌহিদী জনতার’ ব্যানারে একটি সমাবেশ ডাকা হয়েছিল। পরে সেখানে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে চারজন নিহত হয়।

স্থানীয় হিন্দু যুবক বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র ইসলাম ও নবিজি সাল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে আয়োজিত ভোলার বোরহান উদ্দীন উপজেলায় ধর্মপ্রাণ মুসলিম জনতার বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশি হামলা ও চার মুসল্লির শাহাদাতের প্রতিক্রিয়ায় ইত্তেফাকুল উলামা বৃহত্তর মোমেনশাহী, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা শাখার উদ্যোগে এ কর্মসুচি পালন করা হয়।

মুফতি শফিকুল ইসলাম হামিদীর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইত্তেফাকুল উলামা ঈশ্বরগঞ্জ শাখার সভাপতি মাওলানা খন্দকার আবুল ফজল, সহ সভাপতি মাওলানা আবদুল মান্নান, মুফতি নাঈমুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা নূরে আলম,  সহ সাধারন সম্পাদক মাওঃ উবায়দুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি মানসুরুল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, শুক্রবার বিকালে বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র নিজের নাম ও ছবি সম্বলিত ফেসবুক আইডি Biplob Chandra Shuvo থেকে আল্লাহ তায়ালা ও নবী করিম সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ গালাগাল করে তার কয়েকজন ফেসবুক বন্ধুদের কাছে ম্যাসেজ পাঠায়। এক পর্যায়ে কয়েকটি আইডি থেকে ম্যাসেজগুলোর স্ক্রিনশট নিয়ে ফেসবুকে কয়েকজন প্রতিবাদ জানালে বিষয়টি সকলের নজরে আসে।

এতে স্থানীয় ধর্মপ্রাণ জনতা আজ রোববার সকালে বোরহানউদ্দীন হাইস্কুল মাঠে হিন্দু এ যুবকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে একটি প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বেলা ১১টার দিকে বোরহানউদ্দিন হাইস্কুল মাঠে পূর্বঘোষিত এই সমাবেশটি চলছিল। সমাবেশে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় ধর্মপ্রাণ হাজার হাজার মানুষের সমাগম ঘটে। এসময় পুলিশ সমাবেশ সময়ের আগে শেষ করতে বলে প্রতিবাদী জনতাকে। প্রতিবাদী জনতা পুলিশের এ কথা না মানলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পুলিশ তখন নির্বিচার গুলি বর্ষণ করে। এতে শতাধিক মুসল্লি আহত এবং চারজন শাহাদাত বরণ করেন।

এদিকে সাধারণ মানুষের এ প্রতিক্রিয়ায় অবস্থা বেগতিক দেখে শনিবার সন্ধ্যার পর বিপ্লব চন্দ্র নামক ওই হিন্দু যুবক বোরহানউদ্দিন থানায় তার আইডি হ্যাক হয়েছে দাবি করে একটি জিডি করতে যায়। তখন থানা পুলিশ বিষয়টি তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদের নাম করে বিপ্লব চন্দ্রকে তাদের হেফাজতে রাখে।

কর্মসুচির লাইভ ভিডিও ১

সুচির লাইভ ভিডিও ২

loading...
%d bloggers like this: