আল-আমিনকে জরিমানা করল বিসিবি

0

পূর্বাঞ্চলকে (ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোন) হারিয়ে বিসিএলের টানা তৃতীয় শিরোপা ঘরে তুলেছে দক্ষিণাঞ্চল (বিসিবি সাউথ জোন)। দলের এমন ভালো দিনে নিজের খারাপ খবর শুনতে হয়েছে দক্ষিণাঞ্চলের পেসার আল আমিন হোসেনকে। ফাইনাল ম্যাচে অযাচিত আচরণের জন্য বিসিবি (বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড) তাঁকে শাস্তি দিয়েছে। আল আমিনের ম্যাচ ফি’র পঞ্চাশ শতাংশ জরিমানা করেছে বিসিবি।

চট্টগ্রামে টুর্নামেন্টের ফাইনালে মঙ্গলবার ১০৫ রানের বড় জয় পেয়েছে দক্ষিনাঞ্চল। এই নিয়ে টুর্নামেন্টের অষ্টম আসরে পঞ্চম শিরোপা জিতেছে দলটি। বিসিএলের টানা তৃতীয় শিরোপা ঘরে তুলেছে দক্ষিণাঞ্চল। দল শিরোপা জিতলেও ফাইনাল ম্যাচে বল হাতে আলো ছড়াতে পারেননি আলি-আমিন।

প্রথম ইনিংসে উইকেট শূন্য থাকা আল-আমিন হোসেন দ্বিতীয় ইনিংসে পান একটি মাত্র উইকেট। এই উইকেট শিকার করেই প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আশরাফুলের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন।

আর তাতেই আল-আমিনকে প্রথম পর্যায়ের অপরাধে সর্বোচ্চ শাস্তি ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, আল-আমিন হোসেন আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন এবং সেজন্য তাকে জরিমানা করা হয়েছে।

কারণ হিসাবে বলা হয়, ব্যাটসম্যানকে আউট করার পর দক্ষিণাঞ্চলের পেসার আল-আমিন হোসেনের ভাষা এবং শারীরিক আচরণ অশালীন ছিল।

আইসিসির কোড অফ কন্ডাক্টের অনুচ্ছেদ নম্বর ২.৫ এর ধারা ভঙ্গ করেছেন আল-আমিন হোসেন। যেখানে বলা আছে, কোন ম্যাচ চলাকালীন সময়ে কাউকে আউট করার পর, তার প্রতি এমন কোন ভাষার প্রয়োগ করা যাবে না, কোনরকম অ্যাকশন করা যাবে না যা তাকে আগ্রাসী কিছু করতে বাধ্য করতে পারে। এই অপরাধের সর্বনিম্ন শাস্তি- আনুষ্ঠানিক সতর্কবার্তা এবং সর্বোচ্চ শাস্তি- ম্যাচ ফি’র অর্ধেক জরিমানা।

প্রথম পর্যায়ের এই অপরাধের জন্য বাংলাদেশ জাতীয় দলের পেসার আল-আমিন হোসেনকে সর্বোচ্চ শাস্তিই দিয়েছে বিসিবি।

%d bloggers like this: