ঢাকা ২৯.৯৯°সে ১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

তরুণীর বাসায় চিকিৎসক আটক, ২০ লাখ টাকা কাবিনে বিয়ে

দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের সার্জারি বিশেষজ্ঞ জিল্লুর রহমান সুমন নামে এক চিকিৎসক ১৯ বছর বয়সী এক তরুণীর সঙ্গে পরকীয়া করতে গিয়ে এলাকাবাসীর কাছে ধরা খেয়েছেন। গতকাল রোববার রাতে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলায় ওই তরুনীর বাসায় রাত কাটাতে গিয়ে ধরা খান তিনি। পরে তাকে আটক করা হয়। আটক ওই চিকিৎসকের বাড়ি ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের গোয়ালপাড়া এলাকায়। পরে এলাকাবাসীর চাপের মুখে ওই তরুণীকে বিয়ে করতে বাধ্য হন ওই চিকিৎসক।

জানা যায়, উপজেলার এক তরুণীকে সঙ্গে চিকিৎসক সুমনের দীর্ঘ দিনের পরিচয় ছিল। এরপর স্ত্রীর পরিচয় গোপন রেখে ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন চিকিৎসক জিল্লুর রহমান সুমন। এরপর ওই তরুণীকে সঙ্গে নিয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বিভিন্ন আবাসিক হোটেল ও ভাড়া বাড়িতে থেকে একান্তে রাত কাটাতে শুরু করেন। গতকাল রোববার রাতে ওই তরুণীর বাসায় রাত কাটাতে গিয়ে স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়েন তিনি। এরপর ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেন ওই চিকিৎসকের পরিবারের লোকজন। ঘটনাটি সবখানে ছড়িয়ে পড়লে অবশেষে সোমবার সন্ধ্যায় এলাকাবাসীর চাপের মুখে ওই তরুনীকে বিয়ে করতে রাজি হন চিকিৎসক সুমন। পরে এলাকাবসীর সামনে ২০ লাখ টাকা কাবিনে ওই তরুণীকে বিয়ে করেন তিনি।

এ বিষয়ে পীরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে দুইজনের কথা মত তাদের বিয়ে দেওয়া হয়েছে।




আপনার মতামত লিখুন :

এক ক্লিকে বিভাগের খবর