ঢাকা ২৮.৯৯°সে ১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সিলেটে আইনজীবী স্বামীকে হত্যা করে খালাত ভাইকে বিয়ে

সিলেটে আইনজীবী স্বামীকে হত্যা করে স্ত্রী খালাত ভাইকে বিয়ে করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ইতোমধ্যে বুধবার (৩ জুন) রাত ৩ টার দিকে নিহত অ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেরে স্ত্রী শিপা বেগমকে গ্রেফতার করেছে কতোয়ালী থানা পুলিশ।
মামলা বাদী মনোয়ার হোসেনের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়- নিহত অ্যাডাভোটে আনোয়ার হোসেন সিলেট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের আইনজীবী ছিলেন, তিনি সিলেট নগরীর তালতলা এলাকায় নিজ বাসায় স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন। কিন্তু তার অগোচরে স্ত্রী শিপা বেগমের পরকীয়ার সম্পর্ক চলছিলেঅ খালাতো ভাই শাহজাহান চৌধুরী মাহি নামের একজনের সঙ্গে। এর জেরেই আনোয়ার হোসেনকে হত্যা করা হয়।

গত ৩০ এপ্রিল সেহরি খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন আনোয়ার হোসেন। পরদিন বিকেলে ৩ টার দিকে স্ত্রী শিপা বেগম আত্মীয় স্বজনকে জানান, আনোর হোসেন ডায়াবেটিক নিল হয়ে মারা গেছেন। পরে তাকে নিজের গ্রামের বাড়ি সিলেট সদর উপজেলার শিবের বাজারে দীঘির পার গ্রামের দাফন করা হয়।

পরবর্তীতে আনোয়ার হোসেনের পরিবার জানতে পারেন, শিপা বেগম সহ তার খালোতো ভাই সহ কয়েকজন মিলে তাকে হত্যা করা হয়। এবং শিপা বেগম আনোয়ারের মৃত্যুর পর খালাতো ভাই শাহজাহান চৌধুরী মাহি কে বিয়ে করেন। এর পর আগের স্বামী পরবারে সাথে যোগাযোগ বিছিন্ন করে দেন। বিষয়টি আনোয়ারের পরিবারে সন্দেহ হলে  মঙ্গলবার (১ জুন) সিলেটের অতিরিক্ত চিফ মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যা মামলার আবেদন করেন আনোয়ার হোসেনের ভাই মনোয়ার হোসেন। পরে আদালতে শুনানি শেষে কোতোয়ালি থানার ওসিকে ৩০২ ধারায় মামলা রুজু করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ  দেন বিচারক।

এদিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শিপা বেগমের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কতোয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়াছিন আলী। অপর এক আবেদনে নিহতের মরদেহ কবর থেকে তুলে ময়নাতদন্তের অনুমতি ও চেয়েছেন তিনি। এ দুটি আবেদনের শুনানী ৬/৭ জুন হওয়ার কথা রয়েছে।




আপনার মতামত লিখুন :

এক ক্লিকে বিভাগের খবর