ঢাকা ২৮.৯৯°সে ১২ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ময়মনসিংহে ২৫ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলল দুষ্কৃতকারীরা

ময়মনসিংহের সদর উপজেলায় পুকুরে গ্যাস ট্যাবলেট দিয়ে ২৫ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। রোববার (২৩ মে) দিবাগত রাতে উপজেলার ৬নং চর ঈশ্বরদিয়ার চরবিলা গ্রামের পুটামারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী পুকুরের মালিক আজিজুর রহমান আজিজ। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘রোববার রাত ২টার দিকে যখন পুকুরে আসি, তখনও মাছ ভালো ছিল। সকালে ঘুম থেকে উঠে পুকুরে আসতেই দেখি সব মাছ লাফালাফি করে পুকুরে ভেসে উঠছে। এরপর সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত তিনটি পুকুরের প্রায় ২৫ লাখ টাকার মাছ মরে ভেসে ওঠে।

 

পরে স্থানীয়রা পুকুরের মাছ তুলতে গেলে একটি পুকুরে মাছ নিধনের অ্যালুমিনিয়াম ফসফেট নামক একটি গ্যাস ট্যাবলেটের খোলস দেখতে পেয়ে তা উদ্ধার করেন।’

 

আজিজুর রহমান বলেন, ‘গত ২৫ বছর ধরে আমি মাছচাষ করে আসছি। এখন পর্যন্ত এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি। আমি এসব পুকুরের ওপর ব্যাংক থেকে ৪০ লাখ টাকা ঋণ নিয়েছি। ওরা তো আমার সর্বনাশ করে ফেলল। আমি এখন কীভাবে এই ঋণ পরিশোধ করব? এখন সরকার যদি আমাকে কোনো সহায়তা না করে তাহলে আমার মরণ ছাড়া কোনো উপায় নেই।’ কারোর সঙ্গে আপনার শত্রুতা আছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘জানামতে আমার কোনো শত্রু নেই। আমি দুইজন লোককে সন্দেহ করছি। তবে, এখনই আমি তাদের নাম প্রকাশ করব না।’

 

আজিজুর রহমানের ছেলে ফজলে রাব্বি শাওন বলেন, ‘ঈদের আগে থেকেই কিছু লোক আমাকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে আসছেন। হুমকি পেয়ে আমি ইতোমধ্যে মাছ বিক্রি করব বলে আড়তদারদের সঙ্গে চুক্তি করে ২০ হাজার টাকা বায়না নিয়েছিলাম। মাছ দু- একদিনের মধ্যে দেয়ার কথা ছিল। এর আগেই আমার সব মাছ গ্যাস ট্যাবলেট দিয়ে মেরে ফেলা হলো।’ এ বিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার বলেন, এখনও এ বিষয়ে আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।




আপনার মতামত লিখুন :

এক ক্লিকে বিভাগের খবর