ঢাকা ২৭.৯৯°সে ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নড়াইলের পহরডাঙ্গা মাদ্রাসায় বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলে দোকান বসানো নিয়ে সংঘর্ষে ৬ জন আহত

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা থেকে:
নড়াইলের পহরডাঙ্গা গ্রামে আওয়ামী লীগে ও বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে অন্তত ৬ জন আহত হয়েছে। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়ের পাঠানো তথ্য ও ছবির ভিত্তিতে জানা যায় সংশিষ্ট সূত্র স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রাত ১২ টার দিকে পহরডাঙ্গা মাদ্রাসায় বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলের সময় মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে অস্থায়ী দোকান বসানো নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়।

এর জের ধরে রোববার (১৮ ডিসেম্বর) ৬টায় স্থানীয় একটি ইটভাটায় আ’লীগের কিছু কর্মী কাজ করতে যাওয়ার পথে পহরডাঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আজম ঠাকুরের নেতৃত্বে ওই ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি আরিফ শিকদার, ৪ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আজিজুল শরীফ ও সাবেক ইউপি সদস্য ওয়াহিদের নেতৃত্বে একদল বিএনপি’র নেতা-কর্মী তাদের ওপর অতর্কিতে হামলা করে মারধর করে। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উভয়পক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ বাধে।এতে আ’লীগ দলীয় কর্মী পহরডাঙ্গা গ্রামের নাহিদ শিকদার (৩৯), হাফিজ শেখ (৩০), শারিফ শিকদার (২৬),রফিকুল শেখ (২৫) ও সরসপুর গ্রামের ময়ের মোল্যা (৩৯) আহত হন। অপরদিকে বিএনপি নেতা আরিফ শিকদারের ভাই ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রহিম শিকদার আহত হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে করেন বলে এলাকাবাসী জানান।

আহতদের মধ্যে শারিফ শিকদার ও রফিকুল শেখের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। অন্যদের গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে নড়াগাতি থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মাহবুবুর রহমান আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানা যায় সংশিষ্ট সূত্র জানান,‘পুলিশের পক্ষ থেকে কোন গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেছে। বর্তমানে এলাকায় শান্ত পরিবেশ বিরাজ করছে।




আপনার মতামত লিখুন :

এক ক্লিকে বিভাগের খবর