loading...

গৌরীপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুনকে সাংবাদিকদের বিদায় সংবর্ধনা

0

আবদুল কাদির :
ময়মনসিংহের গৌরীপুর থানার জনবান্ধব অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুনকে ২৯ মে (বুধবার) উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তাকে  শেরপুর জেলায় যোগদানের নির্দেশে দিয়েছেন।

বিভাগীয় বদলির আদেশে শেরপুর জেলায় যোগদানের উদ্যেশ্যে  বৃহস্পতিবার (৩০ মে)২০১৯ গৌরীপুর থানা থেকে বিদায় নেন। ওসি মামুনের হঠাৎ এই বদলির খবরে ওইদিন বিকেলে স্থানীয় সাংবাদিকরা ছুটে যান গৌরীপুর থানায়। এসময় আব্দুল্লাহ আল মামুনকে ফুলের শুভেচ্ছা বিনিময়ের মাধ্যমে বিদায় জানান গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান কাউসার, সাবেক সভাপতি কমল সরকার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু কাউছার চৌধুরী রন্টি, সাংবাদিক ঐক্য ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মদ, সাংবাদিক আবদুল কাদির, শাহজাহান কবির।
প্রসঙ্গগত, আব্দুল্লাহ আল মামুন গত বছর ১২ সেপ্টেম্বর গৌরীপুর থানায় ওসি হিসেবে যোগদান করেন।এদিকে গৌরীপুর থানায় অত্যন্ত কম সময়ে নিজের কর্মদক্ষতায় সর্বস্থরের মানুষের কাছে প্রশংসিত ওসি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুনের আকস্মিক বদলীতে হতবাক গৌরীপুরবাসী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্টাটাস দিয়ে আবেক প্রকাশ করেছে যা উল্লেখ যোগ্য।
ওসি মামুন, গৌরীপুর থানায় যোগদানের পর থেকেই তিনি এলাকায় মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, বাল্য বিয়ে, ইভটিজিং প্রতিরোধ ও মানুষের দীর্ঘদিনের জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিরসনসহ আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেন।
তিনি প্রতি শুক্রবার কোন না কোন মসজিদে “খুৎবার” আগে মসজিদে আসা মুসল্লিদের উদ্যেশ্যে ধর্মীয় মূল্যবোধের আলোকে মাদক, সন্ত্রাস, বিভিন্ন খেলার মাধ্যমে জুয়া,
বাল্যবিয়ে,সহ সকল সামাজিক অন্যায়, বিশৃঙ্খলা, অপরাধ বন্ধে, জাতীয় জরুরি সেবা-৯৯৯ সহ মুসল্লিদের উদ্যেশ্যে সচেতনতামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।
এছাড়া তিনি উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক স্কুলে শিক্ষার্থী ও অভিবাবকদের নিয়ে  ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ,মাদক সহ বিভিন্ন
অপরাধ বন্ধে সচেতনতা মূলক কর্মশালায় করে ব্যাপক প্রশংশীত হয়েছেন।

কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের উদ্যোগে বিভিন্ন ইউনিয়নে ও থানা কম্পাউন্ডে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক  মত বিনিময় সভা করেন যার মাধ্যমে ছোট খাট অপরাধ ও আইন শৃঙ্খলার অনেক উন্নতি হয়েছে।
প্রতি সপ্তাহে  ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশদের সাথেও আইন শৃঙ্খলার উন্নতি কল্পে ব্যাপক কাজ করেছেন এবং গ্রাম পুলিশের মান উন্নয়নেও কাজ করেছেন। গ্রাম পুলিশের সদস্যরাও তার প্রতি খুবই আন্তরিক।

বিভিন্ন এলাকার সাধারণ মানুষকে আইনি সহায়তা প্রদানে তিনি ছিলেন আন্তরিক। তার রুমে যে কেউ যে কোন সময় তাদের সমস্যা নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করতে পারতেন।

আইনি সেবা প্রদানের পাশাপাশি তিনি খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড আয়োজনের ক্ষেত্রে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখতেন। ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুনের প্রচেষ্টায় গৌরীপুর পুলিশ বিভাগের উদ্যোগে কাবাডি, ব্যাড মিন্টন, লাঠিখেলা প্রতিযোগীতা এবং হামদ, নাত ও ক্বেরাত প্রতিযোগিতা সফল ভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, আব্দুল্লাহ আল মামুন শেরপুর সদর থানার ওসি হিসেবে যোগদান করার সম্ভাবনা রয়েছে।

loading...
%d bloggers like this: