loading...

গৌরীপুরে খুটিবিহীন বিদ্যুৎ লাইন, দেখার কেও নেই!

0

আনোয়ার হোসেন শাহীন;খুটিবিহীন ৫ কিঃমিঃ বিদ্যুৎ লাইন,গাছে,গাছে ঝুলছে সার্ভিস তার ,দালালরা হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা।অবিশ্বাস্য মনে হলেও এর সত্যতার প্রমান মিলছে। বিদ্যুৎ এর ভেলকিবাজী বা তেলেসমাতি কর্মটি ঘটেছে
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা বোকাইনগর ইউনিয়নের বেতনন্দর ভাদেরাগ্রামে । ২০১৩ -২০১৪ সালে বিদ্যুৎ দেয়ার নাম করে একই গ্রামের আব্দুর রহমান মাস্টারের ছেলে বিদ্যুৎপ বিভাগের কর্মচারী মঞ্জুরুল হক ও তার সহযোগী উজ্জল এলাকায় ৭৫ জন গ্রাহকের কাছ থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ লাইন দেয়ার অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযোগকারীরা প্রতিবেদক জানান, খুটি দেয়ার কথা বলে উল্লেখিত ব্যাক্তিদ্বয় গ্রাহকদের কাছ থেকে নগদ ৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। ২০১৬ সালে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হলেও খুটির পরিবর্তে বাড়ীর আঙ্গিনায় আমগাছ,জাম গাছ, কাটাল গাছ , নারিকেল গাছ, রেন্টি গাছ, বাঁশকে খুটি হিসাবে ব্যাবহার করে সংযোগ দেয়া হয়। এ সময় মঞ্জুরুল হক গ্রাহকদের বলে যে এটি সাময়িক পরে পর্যায়ক্রমে স্থায়ী খুটি লাগিয়ে দেয়া হবে। এদিকে গ্রাহকদের বার বার তাগিদ দেয়ার পরও বিগত ৫ রছরেও উল্লেখিত গ্রামের খুটি স্থাপন করতে পারেনি। সরে জমিন এলাকায় ঘুরে গ্রাহকদের অভিযোগের সত্যতার প্রমান পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী গ্রাহক হারুনূর রশীদ, জজ মিয়া, মনহর উদ্দিন প্রমূখ গ্রাহক বৃন্দ জানান,বর্তমানে খুটির জন্য তাগিদ দেয়া হলে মঞ্জুরুল হক গংরা গ্রাহকদের নানা প্রকার হুমকি সহ মারপিট, ও ভয়ভৃতি প্রদর্শন করে অাসছে। সম্প্রতি খুটি দেয়ার কথা বললে একই গ্রামের সাহাদ উল্লাহ ছেলে কামালকে মারদোর করে। এ ব্যাপারে চান মিয়ার ছেলে জর্জ মিয়া বাদী হয়ে গৌরীপুর থানায় মামলা রুজু করে। এ ব্যাপারে মঞ্জুরুল হকের কাছে টাকা নিয়ে খুটি না দেয়ার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে,তিনি বলেন খুটি দেয়া হবে। ভাদেরা গ্রামবাসী এই দুর্নীতি বার্তাকে আরো জানান, ভাদের সহ ডি পারা,চর পারা,কাউলাটিয়া গ্রামে একই চিত্র। ঝুকিপূর্ন বিদ্যুৎ ও লাইনের জন্য এলাকাবাসী আতঙ্কে বসবাস করছে।ভাদেরা গ্রামের মনহর উদ্দিনের স্ত্রী বলেন, আমার বাড়ীর সামনে রেন্টি গাছটি আমার প্রয়োজনে কাটার জন্য বার বার বললে ও মঞ্জুরুল হক ও উজ্জল বাধা প্রদানসহ হুমকি প্রদর্শন করে, ফলে আমার গাছটি কাটতে পারিনি। তা ছাড়া উল্লেখিত গ্রামের বিদ্যুত গ্রাহকরা জানান, মিটার না দেখে ভুতরে বিল দেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা আবাসিক বিদ্যুৎ প্রকোশলী মোঃ তহুর উদ্দিন বলেন, আগামী নতুন একটি প্রকল্প আসবে,এই প্রকল্পের আওতায় যে সব এলাকায় খুটি নেই,সে সব এলাকায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে খুটি লাগিয়ে দেয়া হবে।

 

loading...