loading...

ময়মনসিংহে ভুয়া ওয়েবসাইট খুলে প্রতারণার অভিযোগে যুবক আটক

0

বিশেষ প্রতিবেদক: 

ময়মনসিংহে ভুয়া ফেসবুক ও ওয়েবসাইট বিভিন্ন নামে খুলে প্রতারণার মাধ্যমে মানুষকে ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে আব্দুল কাউয়ুম নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা সংস্থা (ডিবি) পুলিশ । শনিবার ময়মনসিংহ শহর থেকে ঐ যুবককে ২শ’ ডলারসহ গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে ।

জানা যায়, আব্দুল কাইয়ুম একজন চিহ্নিত হ্যাকার । ময়মনসিংহসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের নামী- দামী মানুষকে ব্ল্যাকমেইলিং করে । ফেসবুকে এবং অনলাইনে নামে- বেনামে ভুয়া আইডি খুলে এবং ওয়েবসাইড পত্রিকায় সেইসব মানুষদের নামে কুরুচিপূর্ণ , অশ্লীল ছবি সম্বলিত সংবাদসহ বিভিন্ন প্রতারণামুলক মনগড়া লিখে মোটা অংকের টাকা দাবি করত । টাকা দিলে পেজ ও ওয়েবসাইট বন্ধ করত বলে জানান,ভোক্তভোগি মোমেনশাহী ডিএস কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড.মোঃ ইদ্রিস খান ।

এছাড়াও কাইয়ুম বিভিন্ন মানুষের নামে সংবাদ প্রকাশের পর তাদের নিকটজনদের দায়ি করে অপপ্রচার চালাতো । আব্দুল কাইয়ুম ইতিপূর্বেও দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিনের প্রকাশক ড. ইদ্রিস খানের নামে ভুয়া সংবাদ প্রকাশ করে দায়ভার ঐ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক খায়রুল আলম রফিকের নামে অপপ্রচার করে । ডিবি ওসি শাহ কামাল জানায়, আব্দুল কাইয়ুম নামের একজনকে আটক করা হয়েছে,সে হ্যাকার কিনা যাচাই করা হচ্ছে ।

মোমেনশাহী ডিএস কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. ইদ্রিস খানকেও শিকার হিসাবে ফাঁদ পাতে এই কাইয়ুম । ড. ইদ্রিস খান কোতয়ালী মডেল থানায় একটি জিডি দায়ের করেন এর সূত্র ধরেই তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানান । ইদ্রিস খান জানান, তার নিকট থেকে বিভিন্ন সময়ে প্রায় ১৩ লাখ টাকা নিয়েছে এবং শনিবার কাইয়ুম ৪০০ ডলার দাবি করে । ইদ্রিস খান ২শ’ ডলার পরিশোধকালে পুলিশ তাকে আটক করে । প্রসঙ্গত, ইতিপূর্বেও আব্দুল কাইয়ুম ফুলপুর কলেজের অধ্যাপক ড. মল্লিকসহ বিভিন্ন গুনিমানুষের নামে অপপ্রচার করে । কাইয়ুম বিষয়ে জানা গেছে, সে একজন শিবির কর্মী ।

loading...