loading...

গৌরীপুর নানা কর্মসূচী  মধ্যদিয়ে পালিত হলো শহীদ হারুণ দিবস

0

অানোয়ার হোসেন শাহীন,বিশেষ  প্রতিনিধিঃ

নানা কর্মসূচী  মধ্যদিয়ে পালিত হলো  ময়মনসিংহের গৌরীপুরে শহীদ হারুণ দিবস।কর্মসূচির মধ্যে ছিল প্রভাত ফেরী, হারুণ  স্মৃতি স্তম্ভে পুস্পমাল্য  অর্পন,অালোচনা,কাঙ্গালি ভোজ। প্রভাত ফেরী করে সংগীত নিকেতন,শহীদ বেদীতে পুস্পমাল্য  অপর্ণ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট নাজিম উদ্দিন এমপি, শহীদ হারুণ স্মৃতি পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ,মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড,যুগান্তর  স্বজন সমাবেশ, গৌরীপুর কলেজের ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকবৃন্দ।

উল্লেখ্য,উনসত্তরে তৎকালীন শাসকচক্র আগরতলা ষড়যন্ত্র  মামলা  বাঙ্গালীর স্বাধীকার  অান্দোলন  মহান নেতা বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিকে   গ্রেফতার  করলে সারাদেশ  শুরু হয় ছাত্র অান্দোলন। অাইয়োব বিরুধী অান্দোলনে ১১ দফার দাবী অাদায়ের লক্ষে এক সময় ঢাকার পীচঢালা রাজপথ রক্তে রাঙ্গীয়ে দেয় আসাদ,মতিউর। অান্দোলনের জোয়ার  ছাত্র জনতার মাঝে তীব্রতা এনে দেয়। প্রতিদিন গৌরীপুর কলেজের ছাত্রলীগের  ভিপি ফজলুল হকের নেতৃত্বে  চলতে থাকে  ছাত্র সমাজের  ১১ দফা অান্দোলনের  স্বপক্ষে লাগাতার কর্মসুচি। ময়মনসিংহ  থেকে পাঠানো হয়  অাইযোব শাহীর দাঙ্গা পুলিশ।  ২৬ জানুয়ারী  সিদ্ধান্তে ২৭ জানুয়ারী কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রম  পরিষদের  নির্দেশ  মোতাবেক অান্দোলন মুখি ছাত্র জনতা শত বাধা উপেক্ষা করে নেমে পড়ে রাজপথে।  ভিপি ফজলুল হকের  নেতৃত্বে গৌরীপুর কলেজ ক্যাম্পাস থেকে  একটি বিক্ষোভ  মিছিল তৎকালীন গৌরীপুর পুলিশ ফারি অাক্রমন করে বিক্ষোদ্ধ ছাত্র জনতা অাইয়োব খানের ছবি নামিয়ে এনে পুড়িয়ে ফেলে।পরে মিছিলটি ডাক বাংলোর কাছে এক পুলিশ মিছিলে ব্যাপক লাটিচার্য করে। পরে মিছিলটি  স্টেশন রোডে পুলিশের  অন্যায় অাচরনের প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সমাবেশে পরদিন  হরতাল ঘোষনা করে। হরতালের সপক্ষে জঙ্গি মিছিলটি মধ্যবাজারে  অাসলে পুলিশ গুলি করে গৌরীপুর কলেজের বানিজ্যি বিভাগের  দ্বিতীয়  বিভাগের  ছাত্র অাজিজুল  হক হারুণ।

 

loading...
%d bloggers like this: