loading...

ভালুকায় ভাইস-চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম পিন্টু কে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় সর্বস্তরের জনগন

0

আনিস আহমেদ :আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে ময়মনসিংহের ভালুকায় শুরু হয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে অংশগ্রহনকারী প্রার্থীদের দৌড়ঝাপ৷ভোটারদের মাঝে ব্যাপক আলোচনায় উঠে এসেছে উপজেলা পরিষদের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম পিন্টু। যিনি গত নির্বাচনে ভাইস-চেয়ারম্যান পদে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছিলেন।

তবে এবার তিনি ভাইস-চেয়ারম্যান নয় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবেন। ভাইস চেয়ারম্যান  চেয়ারম্যান হিসাবে জনগনের পাশে থেকে উন্নয়ন মূলক কাজের পাশাপাশি অসহায় গরীব মানুষদের, এবং সমাজ সেবা মূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকায় আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তার প্রার্থীতা ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে দলীয় মনোনয়নের লিয়াজো লবিং গ্রুপিং। নিজ নিজ সমর্থকদের সক্রিয় করতে দলীয় কর্মকান্ডে আত্মপক্ষ সমর্থন করে আলোচনার ঝড় বইয়ে দিচ্ছেন সর্বত্র।কে কোন দলের প্রার্থী, কে কেমন চরিত্রের, জন সেবায় কার কি অবদান আছে এগুলোই এখন আলোচনার মূল বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে প্রতিটি আড্ডাস্থল এগুলোই এখন আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু।

তিনি ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় উপজেলায় বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডকে তরান্নিত করাসহ সাধারন মানুষের বিপদে-আপদে পাশে থেকে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করায় ভালুকা উপজেলাবাসী আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভালুকা উপজেলার আগামীর চেয়ারম্যান হিসাবে তাকে পুর্ণসমর্থন দেওয়ার ফলে উপজেলাজুড়ে এখন আলোচিত একটি নাম রফিকুল ইসলাম পিন্টু। তার পক্ষে দলীয় মনোয়নের দাবী উঠেছে সর্বমহলে। রফিকুল ইসলাম পিন্টু  ইতিমধ্যেই আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় নেতাকর্মী ও জন সাধারন কে নিয়ে গন সংযোগ শুরু করেছেন। তার গনসংযোগে সাড়া দিচ্ছেন ভালুকা উপজেলাবাসী। গৌরীপুর উপজেলার সব কয়টি ইউনিয়নের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ও জনগনের সাথে মতবিনিময় ও গন সংযোগ চালিয়ে তিনি ইতি মধ্যেই আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ,তৃর্ণমূলসহ সকলের সু-নজরে এসেছেন। ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি হিসাবে দায়িত্বে থাকা মেধাবী এই যুবনেতা তার ছাত্রজীবন থেকেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী। ছাত্রজীবন থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারন করে তিনি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে সুনামের সাথে জনকল্যানে কাজ করে যাচ্ছেন এই ত্যাগী নেতা।বিগত বিএনপি জোট সরকারের আমলে একাধিক মিথ্যা মামলায় কারা নির্যাতিত হতে হয় তাকে।

দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ভালুকার চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ডকে তরান্নিত করার মাধ্যমে ডিজিটাল ও আধুনিক উপজেলা হিসাবে ভালুকাকে গড়তে আসন্ন নির্বাচনে রফিকুল ইসলাম পিন্টুর মত ক্লীন-ইমেজের প্রার্থীর বিকল্প নেই বলেও আলোচনা চলছে উপজেলার রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মাঝে।

আগামী মার্চ মাসে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হতে যাচ্ছে,তাই আগাম প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন জনপ্রিয় এই নেতা। তুলে ধরছেন শেখ হাসিনার নেতৃত্বের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড।

ভালুকার আওয়ামীলীগের সিনিয়র সকল নেতৃবৃন্দ,বর্তমান সাংসদ কাজিম উদ্দীন আহমেদ ধনুসহ সকলেই তাকে ভালো জানেন। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ দলীয় প্রতীক ও নমিনেশন পাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করে রফিকুল ইসলাম পিন্টু প্রতিনিধিকে বলেন- আমি নৌকার একজন নিবেদিত কর্মী। জেল,জুলুম,হামলা,মামলা উপক্ষো করে হাল ধরে রেখেছি নৌকার। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে যথেষ্ট আশাবাদী আমি। দলীয় টিকিট পেলে উক্তপদটি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে পারব বলে আশাবাদী।

 

loading...
%d bloggers like this: